সিরাজগঞ্জের বগুড়া-নগরবাড়ি মহাসড়কের বাঘাবাড়িতে আলোচিত ‘চালক-হেলপার’ জোড়া খুনের আসামি রফিকুল ইসলাম হ্যাপিকে (৩৬) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) খুলনা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। 

হ্যাপি চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের আলোকদিয়া গ্রামের মৃত রজব আলীর ছেলে। নিজের অপরাধ স্বীকার করে সোমবার সিরাজগঞ্জের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি। 

আজ মঙ্গলবার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর গোলাম কিবরিয়া এ তথ্য জানান। 

নাটোরের কিশোয়ান অ্যাগ্রো কোম্পানির ৪৪ ড্রাম ভোজ্য তেল নারায়ণগঞ্জ থেকে আনার পথে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে ২০১৯ সালের ১৭ মার্চ লুট হয়। তেল লুটে নিয়ে চট্টগ্রামের চালক শাহাব উদ্দিন ও নাটোরের চালক সহকারী ইলিয়াসকে রড দিয়ে পিটিয়ে খুন করে আসামিরা। এরপর লাশ ত্রিপল দিয়ে ঢেকে ট্রাকের ভেতর রেখে পালিয়ে যায়। 

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তোতা সেখ, আরিফুল ইসলাম নুরুল ইসলাম ও ফয়সালসহ ৪ আসামি আগেই ধরা পড়লেও মাঝপথে তদন্তে ধীরগতি দেখা দেয়। সম্প্রতি দৈনিকে সমকালে এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে তদন্তে কিছুটা গতি বাড়ে। হ্যাপি ধরা পড়লেও তিন হত্যাকারী এখনো পলাতক।