লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) নির্মমভাবে পিটিয়ে সাদ্দাম হোসেন (৩২) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে হত্যা করেছে বলে জানা গেছে। উপজেলার গোতামারী ইউনিয়নের দইখাওয়া সীমান্তের মেইন পিলার ৯০১ এর সাব পিলার ১৬ এর কাছে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক গোতামারী ইউনিয়নের ঘুটিয়ামঙ্গল গ্রামের আছির উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার রাতে বাংলাদেশি গরু পারাপারকারীর একটি দলের সাথে সাদ্দাম সীমান্তের মেইন পিলার ৯০১ এর নিকট যায়। এ সময় ভারতের ৭৫ ব্যাটালিয়নের নৌহাটি কাসারপাড় বিএসএফ ক্যাম্পের টহল দল তাদের ধাওয়া করে। অন্যরা পালিয়ে গেলেও আটক হয় সাদ্দাম। তার উপর অমানবিক নির্যাতন চালায় বিএসএফর সদস্যরা। পরে মূমূর্ষ অবস্থায় তাকে সীমান্তে ফেলে রেখে যায় বিএসএফ। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্বার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। পরে চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে পথেই মৃত্যু হয় তার।
স্থানীয় গোতামারী ইউপি চেয়ারম্যান মোনাব্বেরল্ফম্নল ইসলাম মোনা বলেন, খবর পেয়ে সাদ্দামের বাড়িতে গিয়ে স্বজনদের শোকের মাতম দেখা যায়। সাদ্দামের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

হাতীবান্ধা থানার ওসি শাহ আলম জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবির এক কর্মকর্তা জানান, বিষয়টি তারা শুনেছেন। ঘটনার সত্যতা জানতে তদন্ত চলছে।