রংপুরে নৈশ প্রহরীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০   

রংপুর অফিস

ঘটনাস্থলে আশপাশের মানুষের ভিড় -সমকাল

ঘটনাস্থলে আশপাশের মানুষের ভিড় -সমকাল

রংপুরে জহুরুল হক ভোলা (৬০) নামে এক নৈশ প্রহরীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে সদর উপজেলার সদ্যপুস্করনী ইউনিয়নের ভুরারঘাট বাজারের পাশে স্থানীয় নারায়নের কচুক্ষেত থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। 

এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোতয়ালী থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। নিহত ভোলা ফতেহপুর ভুরারঘাটের বাসিন্দা। তিনি রাতে নৈশ্য প্রহরী ও দিনে ভ্যান চালাতেন।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জহুরুল হক ভোলা প্রায় ২০ বছর ধরে স্থানীয় ফরহাদ হোসেনের ধান, চাল, ভুট্টা ক্রয়-বিক্রয়ের প্রতিষ্ঠান মেসার্স আরাফাত বাণিজ্যালয়ে নৈশ্য প্রহরীর চাকুরী করতেন। রাতে তিনি ওই প্রতিষ্ঠানের ভেতরে ঘুমাতেন। শনিবার রাতে দুর্বৃত্তরা ভোলাকে ডেকে তুলে প্রতিষ্ঠানের ভেতরে ঢুকে টাকার বাক্স ভাংচুরসহ ফাইল তছনছ করে এবং ভোলাকে পাশের ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে গলাকেটে হত্যা করে।

কোতয়ালী থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভোলার গলা, পেটসহ বিভিন্ন অংশে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বিষয়টি পুলিশ গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখছে।