সঙ্গীর সঙ্গে আচরণেই নির্ভর করে সুখী দাম্পত্য

প্রকাশ: ২১ জুলাই ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

যখনই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয় তখন একে অন্যের দোষ দেন। কিন্তু সুখী দাম্পত্য গড়তে যে দুজনেরই অবদান প্রয়োজন এটা অনেকে ভুলে যান। স্বামী বা স্ত্রী সঙ্গীর সঙ্গে কেমন ব্যবহার করছেন সেটাই তাদের সম্পর্কের ওপর প্রভাব ফেলে। সম্প্রতি ‘জার্নাল অব হ্যাপিনেস’ এ প্রকাশিত এক গবেষণা থেকে জানা গেছে, যারা নিজের সঙ্গীকে সবচেয়ে কাছের বন্ধু মনে করেন তারাই বিবাহিত জীবনে সবচেয়ে সুখী থাকেন। 

গবেষণার জন্য গবেষকরা বিবাহিত ও অবিবাহিত জুটি যারা একসঙ্গে বসবাস করছেন তাদের ওপর একটা জরিপ চালান। এতে দেখা যায়, যেসব জুটি তাদের সঙ্গীকে নিজেদের সবচেয়ে ভাল বন্ধু মনে করেন তারা অন্যদের তুলনায় দুই গুণ ভাল থাকেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, পুরুষের তুলনায় নারীরা তাদেরকে কাছের বন্ধু ভাবলে সঙ্গীর ওপর বেশি খুশী হন। গবেষণায় এটাও দেখে গেছে, খুব কম নারীই সঙ্গীকে নিজের সবচেয়ে কাছের বন্ধু মনে করেন। 

গবেষকরা বলছেন, বিয়ে মানুষের ব্যক্তিগত জীবনে দারুণ ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। এতে দীর্ঘমেয়াদি অনেক সুবিধাও পাওয়া যায়। তাদের ভাষায়, সুখী দাম্পত্য জীবনে সন্তুষ্টি এনে দেয়।  

তবে এই গবেষণা নিয়ে দ্বিমতও প্রকাশ করেছেন অনেক বিশেষজ্ঞ। কারও কারও মতে, সঙ্গী সবচেয়ে ভাল বন্ধু হলে ভাল। তবে কখনও কখনও তা বিপদও ডেকে আনে ব্যক্তিগত জীবনে। তারা বলছেন, সঙ্গীর সঙ্গে ভাল বন্ধুত্ব রাখা অবশ্যই দারুণ ব্যাপার। তবে সেই সঙ্গে কাছেরও কিছু বন্ধু থাকা দরকার। যদি কেউ মনে করেন সঙ্গীই শুধুমাত্র তার সবচেয়ে ভাল বন্ধু তখন বন্ধুত্ব আর রোমান্টিক সম্পর্কের মধ্যে তিনি পার্থক্য বুঝতে পারবেন না। কখনও আবার সঙ্গীর সঙ্গে কোনও বিষয়ে দ্বিমত হলে, তর্কাতর্কি হলে নিজেকে একা মনে হবে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া