সম্পর্ক ভাঙ্গার মতো কষ্টের ব্যাপার কমই আছে।  সহ্য করতে না পেরে কেউ কেউ এর জন্য আত্মহননের পথ বেছে নেন। কেউ আবার নেশায় বুদ হয়ে পড়েন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষ অনেক আশা নিয়ে একটি সম্পর্কে যান। কিন্তু অনেকসময়ই দেখা যায় যে নিজেদের এই সম্পর্কটা ঠিক পথে এগোচ্ছে না। কথায় কথায় সমস্যা হচ্ছে। কোনওভাবেই যেন সম্পর্ক ঠিক দিকে এগোচ্ছে না। এই সময়টাতেই হতে হবে সতর্ক। এই পরিস্থিতিতে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে একবার ভাবতে হবে।

অনেকেই কখন সম্পর্কে থাকতে হবে, কখন সেই জায়গাটা ছেড়ে বের হতে হবে, এই বিষয়টি সহজে বুঝতে পারেন না। ফলে দিনের পর দিন ওই একই সম্পর্কে থাকেন। এরপর একটা সময় যখন আর পারা যায় না, তখন বেরিয়ে আসেন সম্পর্ক থেকে।

সম্পর্কে যাওয়া যতটা কঠিন বিষয়, তার থেকেও জটিল বিষয় হল সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসা। অনেকেরই এর ফলে মনে চেপে ধরে অবসাদ, দুশ্চিন্তাসহ নানা মানসিক সমস্যা। এটা মনে রাখা দরকার, সম্পর্ক ভেঙ্গে যাওয়া মানে জীবন শেষ হওয়া নয়। এই পরিস্থিতিতে কোনো কিছু ভালো না লাগলেও নিজেকে সামলাতে কিছু বিষয় অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-

​নিজেকে ব্যস্ত রাখুন
: নিজেকে ভালো থাকতে হবে। এই বিষয়টা প্রথমেই মনের মধ্যে ঢুকিয়ে নিন। ভালো থাকতে গেলে কোনও সময় কাজ ছাড়া বসে থাকা যাবে না। বরং নিজের জন্য খুঁজে নিতে হবে কাজ। এজন্য নিজের পছন্দের কোনও কাজ দেখতে হবে। এক্ষেত্রে গান করা, ছবি আঁকা বা নিজের যাই পছন্দ হয়, সেই কাজ করুন। তবেই ভালো থাকা হবে সম্ভব। কাজের মধ্যে মন থাকলে আর অন্যদিকে মন যেতে পারবে না।

​বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটান
: বন্ধুরা হল জীবনের ভিত। বন্ধুদের উপর ভর করেই নিজের মন ভালো করার পথ খুঁজে নিন। যত বেশি বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটাবেন, ততই মনে খুঁজে পাবেন আনন্দ। যার সঙ্গে মন খুলে কথা বলতে পারবেন এমন বন্ধুর কাছে কথা লুকিয়ে রাখবেন না। এক্ষেত্রে নিজের কথা সরাসরি তাকে বলুন। তাহলে হালকা লাগবে।

​ঘুরতে যান
: সাদাকালো জীবনকে একটু রঙিন করে তুলতে গেলে অবশ্যই একটু নিজের গণ্ডি ছেড়ে বেরিয়ে যেতে হবে। পারলে কিছুদিনের জন্যে বেড়াতে যান। পাহাড়, সমুদ্র বা প্রকৃতির কাছাকাছি যেকোন জায়গায় ঘুরে আসুন।

নিজেকে সময় দিন : এই সমস্যা সাময়িক। খারাপ সময় কেটে যাবে সহজেই। একটু ধৈর্য ধরতে হবে। এক্ষেত্রে নিজের জন্যও অবশ্যই কিছুটা সময় বের করে ফেলুন। নিজের জন্য যতটা সময় বের করে নিতে পারবেন, ততই ভালো। এই সময়টায় নিজের সঙ্গে কথা বলুন। বুঝতে চেষ্টা করুন ঠিক সমস্যা কোথায়। একবার সেই সমস্যার কথা বুঝে নিতে পারলেই আপনি সমাধানও পেয়ে যাবেন সহজে।

​নেশা নয় : অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় ব্রেকআপের পর মদ্যপান ,ধূমপান বাড়ছে। মনে রাখবেন, এই ধরনের নেশা সমস্যা কমাতে পারে না। বরং এতে মনের পাশাপাশি শরীরও ভেঙ্গে পড়ে।