দুর্ঘটনায় আহত শিল্পী খুরশীদ আলমকে ঢাকায় আনা হয়েছে

প্রকাশ: ৩০ মার্চ ২০১৯      

বগুড়া ব্যুরো

শজিমেকে আহত খুরশীদ আলম- সমকাল

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত একুশে পদকপ্রাপ্ত সঙ্গীত শিল্পী খুরশীদ আলমকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

শনিবার দুপুরে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকায় নেওয়া হয় বলে তার পরিবারের সদ্যরা নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, খুরশীদ আলমকে ঢাকার গ্রীণ লাইফ হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।

সঙ্গীত শিল্পী খুরশীদ আলম শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বগুড়া শহরের ঝোপগাড়ি এলাকায় (এসওএস স্কুল থেকে একটু সামনে) সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হন। তাকে দ্রুত বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

একুশে পদক প্রাপ্তি উপলক্ষে বগুড়ায় বসবাসকারী জয়পুরহাটবাসীর পক্ষ থেকে দেওয়া সংবর্ধনা নিতে গত বৃহস্পতিবার বগুড়ায় আসেন খুরশীদ আলম। শুক্রবার বগুড়ায় হোটেল মম ইন-এ জয়পুরহাট সমিতির পক্ষ থেকে খুরশীদ আলমকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এইকদিন তার ছোট ভাই সাংবাদিক মুরশীদ আলমকেও প্রেস কাউন্সিলের পদক প্রাপ্তি উপলক্ষে সংবর্ধনা দেয় সংগঠনটি।

মুরশীদ আলম জানান, সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে তার ভাই মম ইন হোটেলেই অবস্থান করছিলেন। শুক্রবার রাতে একদল ভক্ত খুরশীদ আলমকে শহরে একটি ঘরোয়া অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানান। পরে সেখান থেকে শুক্রবার রাত ৩টার দিকে একটি প্রাইভেট কার নিয়ে তিনি হোটেল মম ইন-এ ফিরছিলেন। ঝোপগাড়ি এলাকায় পৌঁছার পর পরই বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে তিনি মাথাসহ মুখমণ্ডলে আঘাত পান। তার পাঁচটি দাঁত ভেঙ্গে যায়।

বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেন মিশু জানান, খুরশীদ আলমকে রাত সাড়ে ৩টার দিকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তিনি বলেন, তার মাথায় সিটিস্ক্যান করা হয়েছে। তাতে কোন সমস্যা নেই। শনিবার সকালে তিনি হাসপাতালে হাঁটাচলাও করেছেন। মূলত ভেঙ্গে যাওয়া দাঁতগুলো রিপ্লেসমেন্ট করানোর জন্যই খুরশীদ আলমকে দ্রুত ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শজিমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম রসুল জানান, খুরশীদ আলম সুস্থ আছেন।

বগুড়া উপ-শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনায় দায়ী ট্রাকটিকে সনাক্ত করা যায়নি। তবে খুরশীদ আলমকে বহনকারী প্রাইভেটকারটিকে উদ্ধার করে বগুড়া পুলিশ লাইন্সে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘দূর্ঘটনার পর পরই আমাদের টিমের সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু দূর্ঘটনাকবলিত প্রাইভেটকারের ভেতরে থাকা কেউ ট্রাকটি সম্পর্কে কোন তথ্য দিতে পারেননি। ফলে সেটি সনাক্ত করাও সম্ভব হয়নি।’


বিষয় : খুরশীদ আলম