সংস্কৃতি খাতে জাতীয় বাজেটের এক শতাংশ বরাদ্দ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।

বুধবার চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় ইনচার্জ নিখিল দাস এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, গত ৩ জুন অর্থমন্ত্রী ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার বাজেট সংসদে পেশ করেছে। এই বিশাল বাজেটের সংস্কৃতি খাতে বরাদ্দ মাত্র দশমিক শূন্য ৯৭ শতাংশ। এতে সারাদেশের সংস্কৃতি কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত সব মহল হতাশ হয়েছে।

তিনি বলেন, একদিকে সরকারের উচ্চ মহল বলছে মৌলবাদকে প্রতিহত করতে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড বাড়াতে হবে। অথচ সংস্কৃতিতে এত কম বরাদ্দের সাথে তাদের বক্তব্য অসঙ্গতিপূর্ণ।

বিবৃতিতে বলা হয়, করোনাকালে প্রচুর বাউলসহ প্রান্তিক সাংস্কৃতিক কর্মীরা বেকার হয়ে গেছেন। অনেকে বাদ্যযন্ত্র বিক্রি করে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এদের জন্য সরকারের কোনো প্রণোদনা নেই। মৌলবাদী সংস্কৃতি ও আকাশ সংস্কৃতির বদৌলতে নারী শিশু নির্যাতন, মাদকাসক্তি, অপসংস্কৃতির বিস্তার ঘটছে, সমাজে তৈরি হচ্ছে বিশৃঙ্খলা। তাই আজ দেশজ অসাম্প্রদায়িক সংস্কৃতি বিকাশের স্বার্থে জাতীয় বাজেটের কমপক্ষে ১ শতাংশ বরাদ্দ সময়ের দাবি।

নামমাত্র অনুদান দিয়ে সর্বগ্রাসী সংকট থেকে জাতিকে রক্ষা করা যাবে না বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেন নিখিল দাস।

বিষয় : সংস্কৃতি খাত চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

মন্তব্য করুন