আন্তর্জাতিক বাংলা ভাষা-সংস্কৃতি সমিতির কেন্দ্রীয় প্রকাশনা ‘অভ্যুদয়’ এর প্রকাশনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। গত ১৭ ডিসেম্বর সমিতির বাংলাদেশ শাখার উদ্যোগে ‘অভ্যুদয়’ এর প্রকাশনা অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন দিল্লির কেন্দ্রীয় সভাপতি প্রশান্ত কুমার পাত্র, সাধারণ সচিব সুভাষ চন্দ্র রায়সহ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের শাখার সদস্যরা।

বাংলাদেশ শাখার সভাপতি মাসুদ করিম এবং সাধারণ সচিব নাসির আহমেদ শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন। বাংলাদেশের সুবর্ণ জয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বর্ষের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দুই বাংলার ভাষা প্রেমীরা বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন।

অভ্যুদয় পত্রিকা উন্মোচন অনুষ্ঠানে দিল্লির কেন্দ্রীয় সাধারণ সচিব সুভাষচন্দ্র রায় বলেন, ‘রাজনীতির কাঁটাতারের বেড়া কিন্তু আমাদের হৃদয়ের বন্ধনকে কখনোই আলাদা করতে পারবে না। বিশ্ব একদিন বাংলা ভাষার জয়গানে মুখরিত হবে। বিশ্বের আপামর বাঙালি আত্মীয়তার বন্ধনে আবদ্ধ হবে। আমাদের সকল প্রচেষ্টা একদিন সফল হবেই হবে।’

আন্তর্জাতিক বাংলা ভাষা-সংস্কৃতি সমিতির কেন্দ্রীয় প্রকাশনা 'অভ্যুদয়' এর সম্পাদক কবি নাসির আহমেদ প্রকাশনার বিভিন্ন দিক সমিতির সদস্যদের মাঝে তুলে ধরেন। ভার্চুয়ালি আলোচনায় অংশ নেন সমিতির ভারত ও বাংলাদেশ শাখার বিভিন্ন সদস্যগণ। এতে আরও অংশ নেন দিল্লিসহ কলকাতা, শিলিগুড়ি, আসাম, জলপাইগুড়ি, ত্রিপুরা, কল্যাণী, বর্ধমান, পুরুলিয়া, ত্রিপুরা শাখার সদস্যরা। সারা বিশ্বে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতিকে কিভাবে টিকিয়ে রাখার যায় সে ব্যাপারে বিভিন্ন শাখার সদস্যরা নিজেদের মতামত বিনিময় করেন।

সমিতির সদস্য ছাড়াও স্বনামধন্য লেখকদের লেখা স্থান পেয়েছে ‘অভ্যুদয়’ এর এই সংখ্যায়। সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক, সেলিনা হোসেন, ড. মুনতাসীর মামুন, ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, রফিকুর রশীদ, আনন্দ জামান, মাসুদ করিম, নাসির আহমেদ, অরুপ শান্তিকারী, ভাস্বর বন্দোপাধ্যায়, নিগার সুলতানা, অনিল সাহা, শাহিনুর মাসুদ, সজল কুমার গুহ, মুনীরুজ্জামান, ঝর্না মুখোপাধ্যায়সহ আরো অনেকের ভাষা ও সংস্কৃতিভিত্তিক প্রবন্ধ ও কবিতা।