রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ১ কেজি ২১০ গ্রাম ওজনের স্বর্ণালংকারসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, স্বর্ণালংকারগুলোর বর্তমান বাজার মূল্য ৬৬ লাখ ৯৫ হাজার টাকা।

গ্রেপ্তাররা হ‌লেন- ঢাক‌া জেলার উত্তরা প‌শ্চিম থানার ১৩নং সেক্ট‌রের ২০ নম্বর রো‌ডের ১১নং বাসার ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র দ‌ত্তের ছেলে গৌরাঙ্গ দত্ত (৪৫) ও ব্রাক্ষণবা‌ড়িয়া পৌর ৫নং ওয়া‌র্ডের কা‌জিপাড়া (ব‌নিকপাড়া)র মৃত দী‌নেশ চন্দ্র ব‌নিক ওর‌ফে র‌মেশ বনিকের ছে‌লে তাপস ব‌নিক (৫৫)।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার বিকেলে এ স্বর্ণলঙ্কারগুলো উদ্ধার করি। এ সময় স্বর্ণ পাচারের সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে দুই পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

তিনি আরো জানান, স্বর্ণালঙ্কারগুলোর বিষয়ে গ্রেপ্তাররা কোন বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। এগুলো ভারত থেকে অবৈধভাবে পাচার করে আনা হয়েছে বলে তারা স্বীকার করেছেন।

ওসি বলেন, গোয়ালন্দ মোড় হতে রিকশাযোগে তাপস শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে স্বর্ণালংকারগুলো নিয়ে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের দিকে আসছিল। আমরা গোপন সংবাদ পেয়ে তাকে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় আটক করি। পরে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী অপর আসামি ও তার সহযোগী গৌরাঙ্গকে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ফেরিঘাট এলাকা থেকে আটক করি। এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার এসআই মাছরুল আলম বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। শনিবার আসামিদের আদালতের মাধ্যমে রাজবাড়ীর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিষয় : স্বর্ণালংকার স্বর্ণপাচার

মন্তব্য করুন