ফ্রিজের ব্যবহার আমাদের নিত্যদিনের অংশ হয়ে উঠেছে। ফ্রিজ নিয়মিত পরিস্কার রাখা উচিত। ডিপ ফ্রিজের ক্ষেত্রে এটি আরও বেশি জরুরি। নিয়মিত পরিস্কার রাখলে ডিপ ফ্রিজ ভালো থাকে অনেকদিন। ক'দিন পরেই কোরবানির ঈদ। অনেক দিনের জন্য ফ্রিজে মাংস সংরক্ষণ করতে হবে। মাছ-মাংসভর্তি ফ্রিজ পরিস্কার করাটা বেশ ঝামেলার। তাই এখনি পরিস্কার করে নিন।

পরিস্কারের ক্ষেত্রে

- পরিস্কার করার আগে ফ্রিজের বিদ্যুৎ সংযোগকারী প্লাগটি বন্ধ করে নিন। পরিস্কার করার কয়েক ঘণ্টা আগে ফ্রিজ বন্ধ করুন।

- ডিপ ফ্রিজে অনেক সময় রক্ত, চর্বি জমে যায়। সে ক্ষেত্রে লিকুইড সোপ দিয়ে পরিস্কার করে ভেতরটা কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন। এরপর আরও একবার ভালোমতো পরিস্কার করে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।

- খসখসে কোনো কাগজ বা তার দিয়ে ফ্রিজ পরিস্কার করা উচিত নয়। এতে ফ্রিজের প্লাস্টিক কোটিং নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

- পরিস্কার হয়ে গেলে টেম্পারেচার সুইস অন করে দিতে ভুলবেন না।

- যেসব ফ্রিজে অটোম্যাটিক ডিফ্রস্টিং সিস্টেম নেই, সেসব ফ্রিজে ৪ ভাগের ১ ভাগ বরফ জমলেই সঙ্গে সঙ্গে পরিস্কার করুন।

- দুর্গন্ধ দূর করার জন্য গরম পানিতে বেকিং সোডা বা ভিনেগার মিশিয়ে পরিস্কার করতে পারেন।
বাইরের যত্ন করুন

ফ্রিজের বাইরের আবরণ পরিস্কারের জন্য লিকুইড ক্লিনজার (অ্যামোনিয়া ফ্রি) ব্যবহার করুন এবং নরম কাপড় দিয়ে মুছে নিন। ক্লোরিন বিচ ব্যবহার করলে শেলফের প্লাস্টিকের আবরণ উঠে যেতে পারে।

দরজা বন্ধ রাখুন

অনেকেই ফ্রিজ থেকে কিছু বের করার সময় সঠিকভাবে দরজা বন্ধ করেন না। এর ফলে ফ্রিজের ক্ষতি হয়।

খাবার রাখুন তাজা

- ডিপ ফ্রিজে খাবার পড়লে সঙ্গে সঙ্গে মুছে ফেলুন, যাতে খাবার শুকিয়ে না যায়। তরল খাবার, আচারের বোতল, ক্রিম, মাখন, মাছ, মাংস আলাদা প্যাকেটে রাখুন।

- ফ্রিজের ভেতর অতিরিক্ত খাবার রাখা, খাবার খোলা রাখা এবং ফ্রিজ অপরিস্কার রাখা উচিত না। এতে খাবারে ব্যাকটেরিয়া জমার আশঙ্কা বেশি থাকে।

বিষয় : ডিপ ফ্রিজ

মন্তব্য করুন