ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মানেই শ্বাসরুদ্ধকর দ্বৈরথ। ফুটবলবিশ্বের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ। এই দুইটি দলের মধ্যকার প্রতিদ্বন্দ্বিতাকে ‘দক্ষিণ আমেরিকানদের যুদ্ধ’ বলে অভিহিত করা হয়। তবে এবার ফুটবল মাঠে নয়, ফুটবলেরই ভিন্ন এক সংস্করণ ফুটসালে মুখোমুখি হচ্ছে এই চির প্রতিদ্বন্দ্বী।

কোপা আমেরিকার ফাইনালের পর ভক্তদের আরেকবার উত্তেজনার সাগরে ভাসাতে আবারও হচ্ছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দ্বৈরথ। ফুটসাল বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল।

লিথুয়ানিয়ায় গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে ফুটসাল বিশ্বকাপের নবম আসর। যার পর্দা নামবে আগামী ৩ অক্টোবর। এই টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালেই মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ও সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল।

বুধবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায় ফুটসাল বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে মাঠে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ। পরদিন একই সময়ে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে লড়বে পর্তুগাল ও কাজাখাস্তান। পরে ৩ অক্টোবরই হবে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ও শিরোপা নির্ধারণী ফাইনাল ম্যাচ।

সেমিফাইনাল লড়াইয়ের আগে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দুই দলই পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে পৌঁছায়। পরে দ্বিতীয় রাউন্ডে প্যারাগুয়েকে ৬-১ গোলে এবং কোয়ার্টার ফাইনালে রাশিয়াকে টাইব্রেকারে ৫-৪ ব্যবধানে হারিয়ে সেমির টিকিট নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। অন্যদিকে, দ্বিতীয় রাউন্ডে জাপানকে ৪-২ এবং শেষ আটে মরোক্কোর বিপক্ষে ১-০ গোলের জয়ে ব্রাজিলের সেমির টিকিট নিশ্চিত হয়।

এর আগে কোপা আমেরিকার ফাইনালের পর বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে কিছুদিন আগেই মুখোমুখি হয়েছিল লাতিন আমেরিকার দুই জায়ান্ট। কিন্তু মাত্র ৭ মিনিট খেলা হওয়ার পরই ম্যাচটি বন্ধ হয়ে যায়। তাই এবার দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর সুযোগ পাচ্ছে দুই দলের সমর্থকরা।