পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমির পথে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: পাকিস্তানের বিপক্ষে তপু

ভুটানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে জিতে ২৩ মাস আগের হারের বদলা নেয় বাংলাদেশ দল। পাকিস্তানের বিপক্ষের ম্যাচটিও বাংলাদেশের জন্য ছিল প্রতিশোধের। পাঁচ বছর আগের সেই শোধটা ভালো মতোই নিল বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সাফ ফুটবলে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় তুলে নিয়েছে জেমি ডের শিষ্যরা। এর মধ্য দিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সেমিফাইনালের পথে অনেকটা এগিয়ে গেছে লাল-সবুজের দল। ভুটানের বিপক্ষে জয়ের প্রশংসাও ধরে রেখেছে তপুরা। 

দীর্ঘ তিন বছর পর আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফিরে নেপালকে হারায় পাকিস্তান। বাংলাদেশেরও ভালো পরীক্ষা নিয়েছে তারা। তবে ৮৫ মিনিটে তপু বর্মণকে আর আটকাতে পারেনি পাকিস্তান। আটকাতে পারেনি বাংলাদেশের জয়ও। প্রথম ম্যাচে ভুটানকে হারিয়ে সাফে দারুণ শুরু করে বাংলাদেশ। তবে আত্মতুষ্টি পেয়ে বসেনি সুফিল-সাদদের। বরং সতর্ক ছিল তারা। 

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথমার্ধে কোন গোল করতে পারেনি সাফ শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধারের স্বপ্ন নিয়ে মাঠে নামা বাংলাদেশ। বল দখলের লড়াইয়ে প্রথমার্ধে পাকিস্তানের চেয়ে বেশ এগিয়ে ছিল জেমি ডে'র দল। দ্বিতীয়ার্ধেও বলের দখল নিয়ে খেলে তারা। ম্যাচে ৬০ ভাগ বল ছিল সাদ-সুফিলদের পায়ে।

পাকিস্তানের চেয়ে পাসও দিয়েছে বেশি। বাংলাদেশের ৪০৩ পাসের বিপরীতে মোটে ২৭৭ পাস তাদের। কিন্তু প্রথমার্ধে পরিকল্পিত কোন আক্রমণ তুলতে পারেনি লাল-সবুজের দল। ধীরে এগুনোর পরিকল্পনা করা বাংলাদেশ র‌্যাংকিংয়ে পিছিয়ে থাকা পাকিস্তানের বিপক্ষে কাঙ্খিত গোল পায় শেষ সময়ে। 

র‌্যাংকিংয়ে পিছিয়ে থাকলেও পাকিস্তানের দুই ফুটবলার ইউরোপের লিগে খেলার কারণে এবং এশিয়াডে খেলা তরুণ দলের কারণে তাদের ছোট করার সুযোগ ছিল না বাংলাদেশের। তবে জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন জেমি ডে। প্রথমার্ধে পাকিস্তানের গোলের লক্ষ্যে কোন শট নিতে না পেরে সেই আত্মবিশ্বাসে টান পড়ে সামান্য। তবে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সেমিফাইনালের পথ এগিয়ে রাখায় আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে জামাল ভূঁইয়াদের।  

এর আগে ২০১৩ সালের ৫ সেপ্টেম্বর কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিত দশম সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ পর্বে এই পাকিস্তানের কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। সেটাই ছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের সর্বশেষ ম্যাচ। ২০১৫ সাফে পাকিস্তান ছিল না। পাঁচ বছর আগের দুঃখ ঘুচলো এবার। অতীতের সে ম্যাচকে সামনে আনতে চান না বলে জানান ফুটবলাররা।

তবে দলটা পাকিস্তান বলে এবং বাংলাদেশের ফুটবলের 'নবযাত্রা' বলে যে কথা বাতাসে ভাসছে তার প্রমাণ দিতে মুখিয়ে ছিল বাংলাদেশ। গত কয়েক বছর আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ কোনো সাফল্য পায়নি। এশিয়ান গেমস দিয়ে শুরু। ভুটানের বিপক্ষে দারুন জয় আশার বেলুন ফুলিয়েছে। পাকিস্তানকে হারিয়ে সাফ ফুটবলে বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের প্রত্যাশা।