কিউইদের দুই, টাইগারদের এক স্পিনার?

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: ফাইল

বিপিএলের শেষ ম্যাচে সাকিবের ইনজুরিটা বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে বাংলাদেশ দলের জন্য। তাকে ছাড়া দল সাজাতে একজন বোলার বেশি নিয়ে খেলতে হবে দলের। নয়তো সৌম্য-মাহমুদুল্লাহদের দিয়ে চালিয়ে নিতে হবে ১০ ওভার। সাকিবের অভাব পূরণ করতে দলে থাকতে পারেন সৌম্য সরকার। এছাড়া নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরতে পারেন সাব্বির রহমান।

সৌম্য-সাব্বিরের একজনকে বসিয়ে চার পেসার ও এক স্পিনার নিয়ে মাঠে নামতে পারে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে পেস আক্রমণ সামলানোর দায়িত্বে থাকবেন রুবেল, মাশরাফি, সাইফউদ্দিন এবং মুস্তাফিজ। স্পিন আক্রমনে থাকবেন মেহেদি মিরাজ। তবে মাশরাফিদের তিন পেসার নিয়ে মাঠে নামার সম্ভাবনাই বেশি। সেক্ষেত্রে বেঞ্চে জায়গা হবে সাইফউদ্দিনের।

তামিম ইকবাল এবং লিটন দাসের ওপেন করা অনেকটাই নিশ্চিত। এছাড়া মিডল অর্ডারে মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিক এবং মাহমুদুল্লাহরা ব্যাট করবেন। প্রস্তুতি ম্যাচে মুশফিক-মাহমুদুল্লাহ ভালো পারফর্ম করেন। এছাড়া বিপিএল ফাইনালে ১৪১ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের সুখ স্মৃতি তামিমের সঙ্গে। পেসাররাও নিউজিল্যান্ড দলকে চ্যালেঞ্জ জানাবে। তবে নেপিয়ারের উইকেট কিছুটা স্লো হওয়ায় আরও একজন স্পিনারের অভাব বোধ করতে পারেন মাশরাফিরা।

নেপিয়ারের উইকেট নিয়ে নিউজিল্যান্ড ওপেনার মার্টিন গাপটিলের অভিমত, নেপিয়ারের উইকেট ভারতের বিপক্ষে যেমন দ্রুত গতির হবে ভেবেছিলাম তেমন পায়নি। মানিয়ে নিতে পারেনি আমরা।' বাংলাদেশের বিপক্ষেও তেমনই উইকেট হওয়ার কথা। তবে রান উঠবে বেশ। সেজন্য দুই স্পিনার নিয়ে মাঠে নামবে তারা। কিউইদের দলে থাকবেন মিশেল সাটনার। তার সঙ্গী হতে পারেন লেগ স্পিন অলরাউন্ডার টোড অ্যাস্টন। 

বাংলাদেশের সম্ভব্য একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ, সাব্বির রহমান, মেহেদি মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।  

নিউজিল্যান্ডের সম্ভব্য একাদশ: মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলাস, কেন উইয়িলামসন, রস টেইলর, টস ল্যাথাম, জেমি নিশাম, মিশেল সাটনার, টোড অ্যাস্টন, ম্যাট হেনরি, টেন্ট্র বোল্ট, লকি ফারগুসন।

বিষয় : খেলা ক্রিকেট বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড-২০১৯