বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের নিষিদ্ধ হওয়া উচিত: শোয়েব আখতার

প্রকাশ: ২৯ জুন ২০১৯     আপডেট: ২৯ জুন ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি-টুইটার

শেষের উত্তেজনায় জমে ক্ষীর বিশ্বকাপ উন্মাদনা। এক দলের ক্রিকেটার অন্য দল নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করছেন। কম যাচ্ছেন না সাবেকরাও। নিজ দলসহ প্রতিপক্ষের সম্মান নিয়ে টানাটানি করতে ছাড়ছেন না তারা। সেই দলে এবার যোগ দিলেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিড স্টার শোয়েব আখতার। আফগান ক্রিকেটার ও ক্রিকেট বোর্ডকে একেবারে ধুয়ে দিয়েছেন তিনি। শোয়েবের কিছু কথা শালীনতার সীমাও লঙ্ঘন করেছে বলে অনেকের অভিযোগ।

শুরুটা করেছিলেন আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আসাদুল্লাহ খান। তাদের দল পাকিস্তানের চেয়ে অনেক ভালো বলে দাবি করেছিলেন তিনি। সেটা বলেই ক্ষান্ত হননি, পাকিস্তান দল চাইলে আফগানিস্তান তাদের ক্রিকেটীয় জ্ঞান বাড়াতে সাহায্য করবে বলেও মন্তব্য করেছিলেন আফগান ক্রিকেটের এই কর্তা। 

এরপরই শুরু হয় সমালোচনার ঝড়। পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা ধুয়ে দেন আফগান এই ক্রিকেট কর্মকর্তাকে। সবশেষ এই দলে যোগ দিলেন শোয়েব আখতার। আফগানিস্তানের বেশিরভাগ ক্রিকেটার পাকিস্তানে খেলে বড় হয়েছে বলে স্মরণ করিয়ে দিলেন শোয়েব। বললেন, 'আফগানিস্তানের এই খেলোয়াড়দের আইডি চেক করলে দেখা যাবে আফগানিস্তান দল বিশ্বকাপ থেকেই নিষিদ্ধ হয়ে যাবে। কারণ তাদের অধিকাংশই তো পেশোয়ার বা করাচির রিফিউজ ক্যাম্পে বড় হয়েছে।'

আজ লিডসের হেডিংলিতে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপে শেষ চারে উঠতে হলে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই পাকিস্তানের। 

আফগানিস্তানের ক্রিকেটারদের ব্যাটিংয়ের জ্ঞান নেই বলেও সমালোচনা করেছেন শোয়েব আখতার। তিনি বলেন, 'আফগানদের এখন হোম গ্রাউন্ড হচ্ছে দেরাদুন। একসময় ছিল লাহোরের পেশোয়ার। আমরাই তাদের ক্রিকেট শিখিয়েছি। এখন ভারত শেখাচ্ছে। তবে একটা জিনিস ভারত তাদের শেখাতে পারেনি সেটা হলো কান্ডজ্ঞান। ব্যাটিংয়ে কান্ডজ্ঞানটা ভারত শেখাতে পারেনি।'

মাঠের লড়াইয়ে আফগানদের কোনো ক্ষমা নেই বলেও জানান শোয়েব। তিনি বলেন, 'আমরা আফগানিস্তানকে ভালোবাসি। তাদের ৩০ লাখ শরণার্থী আমরা জায়গা দিয়েছি। তবে খেলার দিন কোন সুযোগ নেই। পাকিস্তান সহজেই আফগানিস্তানকে হারাবে। ওই দুটা পয়েন্ট আমাদের চাই-ই-চাই।'