স্পিনারদের নিয়ে আশাবাদী জোশি

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯     আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯      

সঞ্জয় সাহা পিয়াল, টনটন থেকে

হলিডে ইনের সামনে বাংলাদেশ দলের স্পিন কোচ সুনীল জোশি। ছবি: সমকাল

হোটেলের নাম হলিডে ইন। নাম শুনে মনে হতে পারে লোকজন এখানে শুধু ছুটি কাটাতেই যান। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ছুটি কাটাতে নয়, হলিডে ইনে উঠেছেন বিশ্বকাপে ঘুরে দাঁড়াতে। যদিও সাকিব-তামিম কিংবা মাশরাফি-মুশফিকরা ছুটির মুডেই সময় কাটচ্ছেন।

বাংলাদেশ দলের পাঁচজন ক্রিকেটার টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে ছুটি নিয়েছেন। আগের প্রতিবেদনেই সেটা উল্লেখ করা হয়েছে। ব্রিস্টল থেকে তামিম-সাকিব-মিঠুনরা গেছেন লন্ডনে। তারা শুক্রবার দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। মাশরাফিরা টনটনে আসলেও ছুটির আমেজে কেটেছে তাদের সময়ও।

টনটনের ছিমসাম এই হলিডে ইনে থাকছেন টাইগাররা। ছবি: সমকাল

ব্রিস্টল থেকে টাইগাররা টনটনে আসার সময় আবহাওয়া ছিল ঝলমলে রোদ। তবে গুড়িগুড়ি বৃষ্টির কারণে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা বৃহস্পতিবার কোথাও বেরোননি। হোটেলে বিশ্রাম করেই সময় কাটিয়েছেন। মফস্বল শহর হিসেবে পরিচিত টনটন। ছোট শহরের মতো কাউন্ডি গ্রাউন্ড মাঠটাও ছোট। বাংলাদেশ দলকে তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বড় পরীক্ষা দিতে হবে। চাপ বেড়ে যাবে স্পিনারদের ওপর।

তবে বাংলাদেশ দলের স্পিন কোচ সুনীশ জোশি আশাবাদী, গেইলদের বিপক্ষে স্পিনারদের ভালো করবেন। বাংলাদেশ দল শ্রীলংকার বিপক্ষেও আশাবাদী ছিল। কিন্তু বৃষ্টি সেই আশা শেষ করে দেয়। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম।

বাংলাদেশের শুরুর চার ম্যাচ খুব দ্রুতই হয়ে গেছে। জয় যেমন উদযাপন করার সুযোগ মেলেনি। তেমনি টাইগাররা নিউজিল্যান্ড-ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হারের ময়নাতদন্ত করারও সময় পায়নি। উইন্ডিজ ম্যাচের আগে বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন তারা। দু'দিনের ছুটি পেয়েছেন ক্রিকেটাররা। এটা তাদের ফ্রেশ করে তুলবে বলে মত সুনীল জোশির।

হলিডে ইনে উঠেছেন টাইগাররা। ছুটিতে থাকা পাঁচ ক্রিকেটারও এখানে এসে উঠবেন। ছবি: সমকাল

বাংলাদেশ দলের ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে সাকিব আল হাসানের ইনজুরি নিয়ে চাপা উদ্বেগ আছে। তবে টিম ম্যানেজমেন্ট জানিয়েছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন সাকিব। উইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি টাইগারদের জন্য সবদিক দিয়েই গুরুত্বপূর্ণ। পূর্ণশক্তির দল নিয়েই মাঠে নামবেন মাশরাফিরা।

বৃষ্টির কারণে ম্যাচ-অনুশীলন ভেস্তে যাওয়া নিয়ে সব দলের মধ্যেই হতাশা আছে। স্পিন কোচের মতে, বৃষ্টির ওপর কারও হাত নেই। টাইগারদের তাই পরবর্তী ম্যাচ নিয়েই বেশি ভাবতে হবে।