নবীর ব্যাটে বড় লক্ষ্য দিল আফগানরা

প্রকাশ: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: এএফপি

টস জিতে ব্যাট করা আফগানিস্তানকে শুরুতেই চেপে ধরে বাংলাদেশ। শুরুর তিন ওভারের মধ্যে ১৯ রানে তিন উইকেট তুলে নেন সাইফউদ্দিন এবং সাকিব। সফরকারীরা ৪০ রানেই হারায় ৪ উইকেট। সেখান থেকে দারুণ জুটি গড়ে ম্যাচে ফেরেন মোহাম্মদ নবী এবং আসগর আফগান। সাইফউদ্দিন আবার আক্রমণে এসে সেই জুটি ভাঙেন। কিন্তু শেষ দিকে সৌম্যর এক ওভার ওলট-পালট করে দেয় ম্যাচ। সাইফউদ্দিনের ৪ উইকেট নেওয়ার পরও তাই ১৬৪ রানের সংগ্রহ পেয়ে গেছে আফগানিস্তান।

আফগানিস্তানের হয়ে এ ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন মোহাম্মদ নবী। দলের বিপদে হাল ধরে এই অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার খেলেন ৫৪ বলে ৮৪ রানের ঝকঝকে ইনিংস। সাতবার বল আকাশে তুলে মাঠের বাইরে আড়ছে ফেলেন তিনি। চারের শট খেলেন তিনটি। রান তোলেন ১৫৫.৫৬ স্ট্রাইক রেটে। তার সঙ্গে ৭৯ রানের জুটি গড়েন আসগর আফগান। তার ব্যাট থেকে আসে ৩৭ বলে ৪০ রানের ইনিংস। দুটি ছক্কা ও তিনটি চার মারেন তিনি।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে চার নিয়মিত বোলার নিয়ে মাঠে নামে। সৌম্য-মোসাদ্দেকদের দিয়ে তাই চার ওভার বল করাতে হয়। রক্ষণাত্মক মানসিকতার ওই বোলিং আক্রমণ পিছিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। ম্যাচের ১৮তম ওভারে বল করতে এসে সৌম্য সরকার দেন ২২ রান। দুই ওভারে ৩২ রান খান তিনি। অন্যদিকে মোসাদ্দেক ১ ওভারে ১২ রান দেন। পারটাইম বোলারদের চার ওভারে ৪৭ রান তুলে নেয় আফগানিস্তান। ওখানেই পিছিয়ে পড়ে বাংলাদেশ। ১৮ ও ১৯তম ওভার মিলিয়ে বাংলাদেশ দেয় ৪০রান। 

এর আগে আফগান ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজকে প্রথম বলেই বোল্ড করেন সাইফউদ্দিন। দ্বিতীয় ওভারে ১ রান করে সাকিবের বলে ফিরে যান হযরতউল্লাহ জাজাই। নাজিব তারাকায় তৃতীয় ওভারে আবার আউট হন ১১ রান করে। নাজিবুল্লাহ জাদরান ৫ রান করেই সাজঘরে ফেরেন। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে নেন চার উইকেট। সাকিব আল হাসান ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট। মুস্তাফিজ ৪ ওভারে ২৫ রান খরচায় উইকেট শূন্য থাকেন।