নেতৃত্ব নিয়ে মোসাদ্দেকের ভাবনা

প্রকাশ: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: ফাইল

সাকিব দলকে নেতৃত্ব দিতে চান না। নেতৃত্বের চাপ না নিলে পারফরম্যান্স করতে সুবিধা হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। মুশফিক সমকালের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে জানান, নেতৃত্ব আর কখনোই নয়। তরুণদের এগিয়ে আসার কথা বলেছেন, বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। কিন্তু দলকে নেতৃত্ব দেবেন কে? তরুণদের মধ্যে মোসাদ্দেকের নামটাই আসবে আগে। ঘরোয়া ক্রিকেটে মাশরাফির মতো সিনিয়রকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে মোসাদ্দেককে তাই নেতৃত্ব নিয়ে কিছু ভাবছেন কি-না সেই প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হলো।

রশিদ খান ২০১৫ সালে জাতীয় দলে এসেছেন। তিন ফরম্যাটেই তিনি দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। মোসাদ্দেক ২০১৬ সাল থেকে জাতীয় দলে খেলছেন। কাগজে-কলমে রশিদ খানের চেয়ে বয়সও মোসাদ্দেকের বেশি। যথেষ্ট পরিপক্ক বলা যায় তাকে। সংবাদ সম্মেলনেও প্রায়ই কথা বলতে দেখা যায়। নেতৃত্ব নিয়ে তিনি কিছু ভাবছেন কি-না, বোর্ড কিছু বলে কি-না, ড্রেসিংরুমে আলাপ হয় কি-না এমন প্রশ্নে মোসাদ্দেক যেন একটু বিপদেই পড়ে যান।

গৎবাধা উত্তরে বললেন, 'আসলে বর্তমান অবস্থায় ওভাবে চিন্তা করছি না। ম্যানেজমেন্টে যারা আছেন তারাই এটা খুব ভালো বলতে পারবেন। আমি চেষ্টা করব দলে কতটুকু অবদান রাখতে পারছি সেদিকে ফোকাস করতে।' সাংবাদিকরা যেন তাকে ছাড়ার পাত্র নন। শিরোনাম করার মতো একটা মন্তব্য পেতে উস্কে দিচ্ছেন তাকে, 'ক্যাপ্টেনসি দিলে করবেন?' মোসাদ্দেকের সহজ-সরল উত্তর, 'আসলে আমি এ ব্যাপারে জানি না। এরকম হলে অবশ্যই আমার সঙ্গে কথা হবে। সেটা আলোচনা সাপেক্ষে হয়ত আমি...।' অসমাপ্ত বাক্যে অবশ্য যোগ্যতার অভাব নেই।

মোসাদ্দেক ইতিবাচক উত্তর দিয়ে পরবর্তী প্রশ্নের পথ খুলে দিলেন। প্রশ্ন ছুড়ে গেল, অধিনায়ক হলে ক্রান্তিকালে দলকে কী বার্তা দিতেন। মোসাদ্দেক নতুন কিছু বললেন না। দলকে হিসেবি ক্রিকেট খেলতে বলতেন বলে জানালেন। ভুল কমানো, তাড়াহুড়া কমানোর কথা বললেন। তাহলেই দলের  ম্যাচ জেতার হার বেড়ে যাবে বলে মনে করেন মোসাদ্দেক। এছাড়া দলে আসা তরুণ দুই নতুন মুখও ভালো খেলবে বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।