ফুটবলে দশ মিনিটের জন্য বদলি নামানোর চিন্তা

প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: মেইলি মেইল

ক্রিকেটে এরই মধ্যে 'কনকাশন' নিয়ম চালু করা হয়েছে। কোন ক্রিকেটার মাথায় বা ঘাড়ে ব্যথা পেলে তার সদৃশ বদলি ক্রিকেটার নামামো যায়। এই নিয়মে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে অ্যাসেজ সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথের বদলি হিসেবে মার্নাস লাবুশানে ব্যাট করতে নামেন। ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টেও দেখা গেছে এই নিয়মের প্রয়োগ। এবার ফুটবলেও কনকাশন হলে বদলির নিয়ম চালু করার চিন্তা করা হচ্ছে।

কোন ফুটবলার মাঠে মাথায় আঘাত পেলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য বাধ্যতামূলক দশ মিনিট সময় দেওয়া হবে। এই দশ মিনিটের জন্য তার জায়গায় নামানো যাবে অন্য ফুটবলার। তিনি অস্থায়ী বদলি হিসেবে মাঠে নামবেন। এরপর আঘাত পাওয়া ফুটবলার যদি দশ মিনিট পর প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে খেলার উপযোগী হন তবে আগের বদলি ফুটবলার উঠে যাবেন। 

ফুটবলে এমনিতে মাঠে আঘাত পেলে ফুটবলারকে সাইড লাইনে ক্লাবের মেডিকেল টিমের সহায়তা নিতে তিন মিনিট সময় দেওয়া হয়। তবে কোন বদলি ফুটবলার তার বদলে নামতে পারেন না। ফুটবলে প্রতি মিনিটে রং বদলাতে পারে। তিন মিনিট তাই একজন ফুটবলার ছাড়া খেলা অনেক দলের জন্য কঠিন হয়ে যায়। ব্যথা পাওয়া ফুটবলারও আবার নিতে পারেন না সঠিক চিকিৎসা। কনকাশন নিয়ম চালু করা গেলে চিকিৎসা নেওয়ার সময়টা বাড়বে। অস্থায়ী বদলি ফুটবলার নামায় দলের ওপর চাপও বাড়বে না। 

ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড এই প্রস্তাব উত্থাপন করেছে। ফুটবলের আইন প্রণয়ন করে সংস্থাটি। এই বোর্ডের সদস্যরা আগামী ২৩ অক্টোবর কনকাশন নিয়ম চালুর ব্যাপারে আলোচনা করবেন। তারা এ বিষয়ে সমাধানে আসার জন্য একটি প্রতিনিধি দল গঠন করবেন বলেও ভাবছেন। যদি কোন সিদ্ধান্তে তারা আসরে পারেন তবে ডিসেম্বরে চালু হতে পারে নতুন এই নিয়ম। ক্রিকেটের মতো আমেরিকান ন্যাশনাল ফুটবল লিগ এবং রাগবিতে চালু আছে কনকাশন অনুযায়ী অস্থায়ী বদলির নিয়ম।খবর: দি অ্যাথলেটিক