'ম্যানেজার-অধিনায়ক চাননি লেগস্পিনার খেলাতে'

প্রকাশ: ২০ অক্টোবর ২০১৯       প্রিন্ট সংস্করণ     

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: ফাইল

জাতীয় লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের আগে ঢাকার কোচ জাহাঙ্গীর আলমকে লেগস্পিনার খেলাতে মৌখিক নির্দেশ দিয়েছিলেন বিসিবি পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। রংপুর বিভাগের কোচ মাসুদ পারভেজ রাজনকে একই বার্তা দিয়েছিলেন তিনি। তবুও তারা দ্বিতীয় রাউন্ডে লেগস্পিনার খেলাননি। এজন্য জাতীয় লিগ থেকে শুক্রবার দুই কোচকেই প্রত্যাহার করে নেয় বিসিবি।

শনিবার জাহাঙ্গীর জানালেন, লেগস্পিনার না খেলানোয় তার কোনো দায় নেই। ম্যানেজার মির্জা মঈনুল হোসেন আর অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরী টিম কম্বিনেশনের কারণে লেগি জুবায়ের হোসেন লিখনকে খেলায়নি। যদিও ম্যানেজার মঈনুল জানালেন, এ ব্যাপারে তাকে কিছু জানাননি কোচ। তিনি আরও জানালেন, একজন লেগস্পিনারের পাশাপাশি দু'জন পেস বোলার খেলানো বাধ্যতামূলক করেছে বিসিবি। জাতীয় লিগের সব দলের ম্যানেজারদের এই বার্তা দিয়েছে বিসিবি।

জাতীয় লিগ বিসিবির টুর্নামেন্ট তাই যে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতাও তাদের। তবে কোচ জাহাঙ্গীর মনে করেন তাকে প্রত্যাহার করার আগে কারণ দর্শাতে পারত বিসিবি, 'আমার দোষটা কোথায়। ম্যানেজার-অধিনায়ক চাননি লেগস্পিনার খেলাতে। টিম কম্বিনেশনে জুবায়েরকে রাখতে চাননি তারা। বাঁহাতি ওপেনার নাজমুল ইসলাম অপুকে নিয়ে খেলতে চেয়েছে। সুজন যে লেগস্পিনার খেলাতে বলেছেন, সেটা বলার পরও তারা খেলায়নি। বিষয়টি ভালোভাবে খোঁজখবর না করেই আমাকে প্রত্যাহার করা হলো।'

বিসিবির রংপুর বিভাগের কোচ রাজনকে অবশ্য ফোনে পাওয়া যায়নি। তবে এই দুই কোচকেই লেগস্পিনার না খেলানোর ব্যাপারে জবাবদিহি করতে হবে বিসিবিকে।