ক্রিকেটারদের ধর্মঘট নিয়ে বৈঠকে বিসিবি কর্মকর্তারা

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০১৯     আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: ইএসপিএন

বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট ডেকেছেন। তাদের দাবি পূরণ না হলে সকল ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছেন তারা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার দুপুরে জরুরি বৈঠকে বসেছেন বিসিবি'র কর্মকর্তারা।

বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস দুপুর ১২টায় এ বৈকঠ শুরু হওয়ার কথা জানান। তবে কিছুটা বিলম্বে শুরু হয়েছে ওই বৈঠক। এতে বিসিবির যেসব পরিচালক ঢাকায় আছেন এবং বৈঠকে যোগ দিতে পারবেন কেবল তাদেরকেই ডাকা হয়েছে।

বোর্ডের দায়িত্বশীল এক পরিচালক বলেন, সামনে ভারত সিরিজ। তার আগে বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করা হচ্ছে। আমরা ক্রিকেটারদের বিপক্ষে নই। এর আগে বিসিবি'র প্রধান নির্বাহি নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানান, দ্রুতই তারা ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়ার বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করবেন।

তবে কোন কোন বোর্ড কর্মকর্তা মনে করছেন, ক্রিকেটাররা বোর্ডকে 'ব্লাকমেইল' করার চেষ্টা করছেন। কেউ কেউ আবার ক্রিকেটারদের দাবি যৌক্তিক বলে মনে করছেন। তবে তারা মনে করেন ক্রিকেটারদের আগে বোর্ডের কাছে যাওয়া উচিত ছিল। বিসিবি পরিচালক জালাল ইউনুস যেমন সমকালকে বলেন, 'আমরা জানতামই না ক্রিকেটাররা এতো ক্ষুব্ধ এবং হতাশ। কিন্তু তারা আগে বোর্ডের কাছে না গিয়ে মিডিয়ার কাছে গেছে।'

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা সোমবার বিকেলে মিরপুরে এক সংবাদ সম্মেলন ডাকেন। ওই সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেটাররা দাবি করেন, দেশের ক্রিকেট ঠিক মতো চলছে না। সাকিব, তামিম এবং মুশফিকসহ অন্যান্য ক্রিকেটাররা সংবাদ সম্মেলন থেকে ১১ দফা দাবি জানান। তাদের দাবি-দাওয়া পূরণ না হলে সব ধরণের ক্রিকেট কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

এই ধর্মঘটের জেরে আগামী মাসের শুরুতে বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। ওই সফরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের টেস্ট এবং টি-২০ দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান মূখপাত্র হিসেবে বলেন, দাবি-দাওয়া পূরণ না হলে ক্রিকেটাররা কোন ধরণের ক্রিকেটে অংশ নেবেন না।