চ্যাম্পিয়নস লিগে জয়ের দেখা রিয়ালের

প্রকাশ: ২৩ অক্টোবর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: গোল

পিএসজির বিপক্ষে হার দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ শুরু করে রিয়াল মাদ্রিদ। ঘরের মাঠে ক্লাব ব্রুসের বিপক্ষেও জয় পায়নি লস ব্লাঙ্কোসরা। এগিয়ে থেকেও সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। তবে গ্যালাতাসারের মাঠ থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগের চলতি আসরের প্রথম জয় তুলে নিয়েছে জিদানের শিষ্যরা। প্রথমার্ধে ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফেরা টনি ক্রুসের শটে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

লুকা মডরিচ-গ্যারেথ বেল ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি। রিয়ালের হয়ে এ ম্যাচে চ্যাম্পিয়নস লিগে অভিষেক হয় ব্রাজিলের তরুণ ফরোয়ার্ড রদ্রিগোর। শুরুর একাদশে ছিলেন তিনি। মাঝে মধ্যে ঝলকও দেখান। তবে রক্ষণেই তাকে বেশি মন দিতে দেখা গেছে! রিয়াল অবশ্য শুরুটা ভালো করে। ম্যাচের শুরুতে দারুণ দুই সুযোগ মিস করেও ১৮ মিনিটে হ্যাজার্ডের দেওয়া বল ধরে গোল করেন ক্রুস।

ঘরের মাঠে তুরস্কের ক্লাব গ্যালাতাসারে ছেড়ে কথা বলেনি। তারাও দারুণ সব আক্রমণ করে গেছে। যে কোন সময় গোল করে সমতায় ফিরতে পারতো তারা। তবে ভাগ্য তাদের সহায় হয়নি। রিয়াল মাদ্রিদ গোলরক্ষক থিবো কর্তোয়া এ ম্যাচে দারুণ কিছু সেভ করেছেন। গ্যালাতাসারে তাই তার বাধায় থমকে যায়।

ম্যাচে অবশ্য হলুদ কার্ডের মেলা দেখা গেছে। দুই দলের ফুটবলাররা মোট ৬টি হলুদ কার্ড দেখেছেন। ম্যাচের প্রথমার্ধে কোন দলের ফুটবলার কার্ড দেখেননি। যেন এক ফেয়ার প্লের ম্যাচ। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে কার্ড দেখেন গ্যালাতাসারের সেরি। ম্যাচের ৬৯ মিনিটে কার্ড দেখেন এনজনজি। ওখানেই শেষ হতে পারত। তবে ম্যাচের যোগ করা চার মিনিটে চার হলুদ কার্ড দেখাতে হয় রেফারিকে। প্রথমে রিয়ালের টনি ক্রুস এবং থিবো কর্তোয়া ৯১ ও ৯২ মিনিটে কার্ড দেখেন। এরপর ৯৪ মিনিটে স্বাগতিকদের মার্কো টেক্সিরা এবং মারিয়ানো কার্ড দেখেন।