কাতারকে থামানো কঠিন, তবে অসম্ভব নয়

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০১৯       প্রিন্ট সংস্করণ     

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: বাফুফে

জাতীয় দলের লড়াইয়ে কখনও এই কাতারকে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। এশিয়া কাপের অনূর্ধ্ব-২৩ পর্যায়ে একবার পেয়েছে সাফল্য। অতীতে যে দলটিকে হারানো যায়নি, বৃহস্পতিবার সেই কাতারকে থামানোর প্রত্যাশা লাল-সবুজের দলটির। বৃহস্পতিবার বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত ম্যাচ-পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে শুনালেন স্বপ্নের কথা, 'আমরা জানি ম্যাচটি কঠিন হবে। দশ দিন ধরে ছেলেরা কঠোর অনুশীলন করেছে। ভুটানের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ জেতায় আমাদের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। ভালো একটি ফলাফলের জন্য আগামীকাল (আজ) আমরা খেলবে। তারা এশিয়ার সেরা এবং তাদের দলে দুর্দান্ত সব খেলোয়াড় আছে। তাদের রুখে দেওয়া কঠিন, অসম্ভব নয়। ফুটবলে সব কিছুই সম্ভব।'

এশিয়ান গেমসে জামাল ভূঁইয়ার গোলেই কাতারকে হারিয়ে ইতিহাস গড়েছিল বাংলাদেশ। সেই জামাল এবারও স্বপ্ন দেখছেন কাতারকে হারানোর। এশিয়ান গেমসের মতো এই দলের বেশিরভাগ খেলোয়াড়ের বয়স ২৩ বছরের নিচে। বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিনদের সবসময় উজ্জীবিত বার্তা দিয়ে আসছেন জামাল, 'আমি তাদের বলেছি ম্যাচটি উপভোগ করতে। দেশের জন্য খেলতে। তাদের বলেছি এ রকম ম্যাচ তোমরা আরও খেলতে পারবে। ম্যাচে ভুল হতে পারে; কিন্তু চাপ নেওয়া যাবে না। স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে হবে।'

কাতারকে থামাতে হলে রক্ষণাত্মক খেলতে হবে। সুযোগ বুঝে আক্রমণে উঠতে হবে বাংলাদেশকে। এই পরিকল্পনা নিয়েই কাতারের বিপক্ষে নামছে বলে জানিয়েছেন জামাল, 'কাতার এশিয়ার নাম্বার ওয়ান দল। তাদের বিপক্ষে ম্যাচটি কঠিন হবে। আমাদের সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে। নিজেদের উজাড় করে খেলতে হবে। আফগানিস্তানের বিপক্ষেও আমরা বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করেছিলাম; কিন্তু গোল করতে পারিনি। এই ম্যাচে সে রকম করা যাবে না।'