সাকিব-তামিমকে মিস করবে ভারত

প্রকাশ: ০২ নভেম্বর ২০১৯      

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ভারতের অনুশীলন ছিল বিকেলে। রবি শাস্ত্রী এসে আকাশের দিকে তাকালেন। সূর্যের মুখটা তখনও আড়াল করে রেখেছে ধোঁয়া। সূর্য মামাকে আর দেখা হলো না তার। মাঠে খেলোয়াড়দের দেখে মনে হচ্ছিল, তারাও স্বস্তিতে নেই। অবশ্য অনুশীলনে খেলোয়াড়দের কেউ মাস্ক পরেননি। হয়তো স্বাগতিক হিসেবে দূষণের কোনো বার্তা দিতে চাননি তারা। সংবাদ সম্মেলনে আসা ভারতের ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোরকে ঠিকই দিল্লির দূষণ নিয়ে কথা বলতে হলো। বাস্তবতাও মেনেও নিলেন তিনি। তবে এসব ছাপিয়ে উঠে এলো সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞা এবং ভারতে তার না থাকার ইস্যু। সাকিবের নিষেধাজ্ঞাকে দুর্ভাগ্যজনক মনে করেন ভারতের ব্যাটিং কোচ।

সাকিব নিষিদ্ধ হওয়ায়, পারিবারিক কারণে তামিম ইকবাল এবং চোট থাকায় পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন বাংলাদেশের স্কোয়াডে নেই। ১৫ জনের দলে নতুন মুখ বেশ কয়েকজন। এই দল নিয়েই লড়াই করতে চায় টাইগার শিবির। বিক্রমও মনে করেন, টি২০ ম্যাচে যে কোনো দলই প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তোলার সামর্থ্য রাখে। তবে এই সিরিজে সাকিব-তামিমকে ভারতও মিস করবে বলে জানান তিনি, 'টপ খেলোয়াড়দের না থাকা অবশ্যই মিস করব। তবে টি২০ এমন একটা ফরম্যাট, যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে এক বা দু'জনের পারফরম্যান্সই যথেষ্ট। বাংলাদেশ এ ফরম্যাটে ভালো খেলে। এ দুই দলের আগের ম্যাচগুলো প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ছিল। আশা করি এবারও ভালো ক্রিকেট দেখবে দর্শক।'

টাইগারদের বিপক্ষে তরুণদের সুযোগ দিচ্ছে ভারত। ২০২০ সালের টি২০ বিশ্বকাপের জন্য দল গোছাতে এ পরিকল্পনা স্বাগতিকদের। বিক্রমের মতে, 'বড় টুর্নামেন্ট সামনে। সেদিক থেকে কোর ক্রিকেটারদের সম্পর্কে জানতে হবে এবং কোর গ্রুপকে ধরে রাখতে হবে।' এই সিরিজ থেকে বিশ্রাম নিয়েছেন নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। রোহিত শর্মার নেতৃত্বে সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচেই দেখা যেতে পারে একাধিক উদীয়মান খেলোয়াড়কে। টি২০ বিশ্বকাপের প্রথম চ্যাম্পিয়ন ভারতের ব্যাটিং কোচ জানালেন, আগামীর ক্রিকেটারদের পরখ করে দেখে নেওয়ার সুযোগ কাজে লাগাতে চান তারা, 'এ সময়ে নতুন খেলোয়াড়দের দেখে নেওয়ার ভালো সুযোগ। তারা ভালো করলে একটা ভালো কম্বিনেশন তৈরি করতে পারা যাবে।'

ভারতের যেমন পরিকল্পনা বিশ্বকাপকেন্দ্রিক, বাংলাদেশেরও তাই। রাসেল ডমিঙ্গোর ১৫ সদস্যের স্কোয়াডেও আছেন আফিফ হোসেন, নাঈম শেখ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লবরা। সেখানে ভারসাম্য আনতে আল-আমিন হোসেন, আরাফাত সানি ও তাইজুল ইসলামরাও সুযোগ পেয়েছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষার মিশনে এই সিরিজ ভারতের জন্যও কম চ্যালেঞ্জের নয়।