শ্রীলংকার কোচ হলেন মিকি আর্থার

প্রকাশ: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯   

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: আইসিসি

ছবি: আইসিসি

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর পাকিস্তানের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করার কথা ছিল কোচ মিকি আর্থারের। বোর্ডের সঙ্গে পাকিস্তান ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়েও আলাপ শুরু করেছিলেন। কিন্তু হুট করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড মিকি আর্থারকে ছাঁটাই করে দেয়। দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচ শ্রীলংকার প্রধান কোচ হয়ে সেই পাকিস্তানেই যাচ্ছেন প্রথম সফরে।

এছাড়া পাকিস্তানে মিকি আর্থারের সঙ্গে ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাজ করা গ্রান্ট ফ্লাওয়ারও থাকছেন শ্রীলংকার কোচিং প্যানেলে। ডেভিড সেকার বোলিং এবং শেন ম্যাকডরমট ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন। প্রাথমিকভাবে শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড নতুন এই কোচিং স্টাফদের সঙ্গে দুই বছরের চুক্তি করেছে। তবে গ্রান্ড ফ্লাওয়ার শুধু সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ব্যাটিং নিয়ে কাজ করবেন। তিনি তাই ১১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া পাকিস্তানে টেস্ট সিরিজের সফরে যাবেন না।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে মিকি আর্থার অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ কোচদের একজন। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং পাকিস্তানের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা তার ২০০৫-২০১০ মেয়াদের মধ্যে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের সেরা দল হয়। তার অধীনে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জেতে প্রোটিয়ারা।

পাকিস্তানের দায়িত্ব নিয়ে তিনি সরফরাজদের ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জেতান। পাকিস্তানকে টি-২০ র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে তোলেন। তবে অস্ট্রেলিয়ার কোচ হিসেবে বেশি সময় দায়িত্বও পালন করেননি আর্থার। খুব একটা সফলও হননি। ২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে অস্ট্রেলিয়া তার অধীনে গ্রুপ পর্বে বিদায় নেয়।

এর আগে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ থাকা চন্দিকা হাথুরুসিংহে শ্রীলংকা জাতীয় দলের দায়িত্ব নেন। কিন্তু বাংলাদেশ দলের সঙ্গে কাজ করে যেমন সফল হাথুরু হয়েছিলেন নিজ দেশে সেটা দেখাতে পারেননি। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পরে তাকে দায়িত্ব থেকে সরে যেতে বলা হয়। তিনি তা মানতে নারাজ ছিলেন। পরে হাথুরুকে সরিয়ে রমেশ রত্নায়েকেকে শ্রীলংকার অন্তবর্তীকালীন কোচ করে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। এবার নিয়মিত কোচ কাম পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেলেন মিকি আর্থার।