বিসিবির চাকরি ছেড়ে দিলেন ল্যাঙ্গেভেল্ট

প্রকাশ: ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯       প্রিন্ট সংস্করণ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ছবি: ফাইল

ছবি: ফাইল

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডে পরিবর্তনের ঢেউ এসে লেগেছে বাংলাদেশের ক্রিকেটেও। সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ প্রোটিয়া বোর্ডের ক্রিকেট পরিচালকের দায়িত্ব নিয়েই হেড কোচ হিসেবে নিয়োগ দেন সাবেক সতীর্থ মার্ক বাউচারকে। তিনিও কাজে যোগ দিয়ে নিজের পছন্দমতো কোচিং স্টাফ খুঁজতে শুরু করেন। সে ধারাবাহিকতায় চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্টকে ডেকে পাঠিয়েছেন বাউচার।

ওই ডাক পেয়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব ছেড়ে দিলেন ল্যাঙ্গেভেল্ট। অচিরেই নিজ দেশ দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং কোচের দায়িত্ব নেবেন সাবেক এই প্রোটিয়া পেসার। জোহানেসবার্গ থেকে এমনই খবর এসেছে বিসিবির কাছে। তবে ল্যাঙ্গেভেল্ট কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকান বোর্ড থেকে অফিসিয়ালি কিছু না জানানোয় এই ব্যাপারে বিসিবির পক্ষ থেকেও কিছু বলা হচ্ছে না।

কিন্তু জোহানেসবার্গে থাকা টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সমকালকে জানান, 'চার্ল (ল্যাঙ্গেভেল্ট) আর আমাদের সঙ্গে কাজ করবে না। সম্ভবত সে দক্ষিণ আফ্রিকান দলের সঙ্গে চুক্তি করেছে।' গত ২৬ জুলাই তাকে নিয়োগ দিয়েছিল বিসিবি। ২০ আগস্ট থেকে কাজে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। তার সঙ্গে চুক্তি ছিল আগামী বছর টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত। কিন্তু দায়িত্ব নেওয়ার পাঁচ মাসের মাথায় চাকরি ছেড়ে দিলেন ল্যাঙ্গেভেল্ট।

টাইগারদের ভারত সফর শেষে কলকাতা থেকেই ছুটি কাটাতে দেশে চলে যান ল্যাঙ্গেভেল্ট। সেখান থেকেই মঙ্গলবার ই-মেইলে বিসিবিকে দায়িত্ব ছাড়ার কথা জানিয়ে দেন। অথচ কাজে যোগ দিয়েই তিনি জানিয়েছিলেন, টেস্টে দেশের বাইরে ভালো করার মতো একটি পেস বোলিং ইউনিট গড়ে তুলতে চান তিনি। সে চ্যালেঞ্জ ভুলে চলে গেছেন ৪৫ বছর বয়সী এই কোচ। হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর নেতৃত্বে বাংলাদেশ দলের কোচিং স্টাফের অধিকাংশ সদস্যই দক্ষিণ আফ্রিকার।

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, ল্যাঙ্গেভেল্ট আর না এলে প্রধান কোচের সঙ্গে পরামর্শ করে অচিরেই নতুন বোলিং কোচ নিয়োগ দেওয়া হবে। বাংলাদেশের আগে আফগানিস্তানের কোচ ছিলেন ল্যাঙ্গেভেল্ট। দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের সঙ্গেও কাজ করেছেন তিনি।