'দেখুন, আমার মতে পাঁচ দিনের টেস্ট যেভাবে চলছে সেভাবেই চলতে দেওয়া উচিত।' আইসিসি ক্রিকেট কমিটির সদস্য এবং শ্রীলংকা জাতীয় দলের কোচ মিকি আর্থারের পরিষ্কার মতামত। বিরাট কোহলি, বেন স্টোকস কিংবা ভারনন ফিল্যান্ডারের সঙ্গে সুর মিলিয়ে চার দিনের টেস্ট বাধ্যতামূলক করার চিন্তার বিপক্ষে দাঁড়িয়ে সপাট উত্তর দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচের।

ভারতের বিপক্ষে পুনেতে সিরিজের শেষ টি-২০ ম্যাচের আগে তিনি বলেন, 'টেস্ট ক্রিকেট আপনাকে চ্যালেঞ্জ জানাবে। আপনার শারীরিক-মানসিক ফিটনেস এবং টেকনিককে চ্যালেঞ্জ জানাবে। চারদিনে টেস্ট নেমে আসলে আমরা যে রোমাঞ্চের সাক্ষী হচ্ছি তা আর থাকবে না। টেস্টকে ব্যবসার বলি বানানো ঠিক হবে না।'

আইসিসি ক্রিকেট কমিটির আরেক সদস্য মাহেলা জয়বর্ধনেও চার দিনের টেস্টের বিপক্ষে। লংকান সাবেক এই অধিনায়ক পিটিআইকে বলেন, 'একটা সভায় আমরা চার দিনের টেস্টের সম্ভাবনা নিয়ে আলাপে বসেছিলাম। জানি না, শেষ পর্যন্ত টেস্টের ভাগ্যে কী লেখা আছে। তবে আমি মনে করি, টেস্ট যেভাবে আছে সেভাবেই থাকা উচিত।'

সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার এবং বর্তমান ভারতীয় জাতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রী চার দিনের টেস্টের চিন্তাকে ননসেন্স বলে আখ্যা দিয়েছেন। সিএনএন নিউজ-১৮কে তিনি বলেন, 'পাঁচ দিনের টেস্ট ঘষা-মাজা করার কোন দরকার নেই। যদি কাটা-ছেড়া করতেই হয়, র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ পাঁচ দলকে পাঁচ দিনের টেস্ট খেলতে দিন। বাকি ছয় দল একে অপরের বিপক্ষে চার দিনের টেস্ট খেলুক।' ক্রিকেটের মোড়ল দেশের সাবেক ক্রিকেটার এবং কোচ রবি শাস্ত্রী বক্তব্য অবশ্য 'মোড়লময়'।

তবে ইউনিভার্স বস ক্রিস গেইল কোন শর্ত দিয়ে নয়; চার দিনের  টেস্টের বিপক্ষে তিনি সেটা সরাসরিই জানিয়েছেন, 'আমি অন্তত চার দিনের টেস্টের ভক্ত নই। আমি ক্যারিয়ারে একশ' টেস্ট লেখেছি। এর মধ্যে কিছু তিন দিনে, কিছু চার দিনে শেষ হয়েছে। কিন্তু শেষ মেষ পাঁচ দিনের টেস্টই তো খেলেছি। এটা বছরের পর বছর চলছে। এটাকে তাহলে হযবরল করার পায়তারা কেনো। এই পাঁচ দিনের টেস্ট অনেককে জীবনের শিক্ষাও দেয়।'