ইনজুরি নিয়ে খেলায় বিতর্কে মাশরাফি

প্রকাশ: ১৪ জানুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: বিসিবি

ছবি: বিসিবি

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে শুরুর ডাকে দল পাননি আইকন থাকা মাশরাফি। পরে ঢাকা তাকে দলে নেয়। দলকে নেতৃত্ব দিয়ে শেষ চারে তোলেন মাশরাফি। পারফরম্যান্স আহামরি না হলেও মাঠে তার নেতৃত্বের প্রভাব ছিল স্পষ্ট। টিকে থাকার লড়াইয়ে তাই চট্টগ্রামের বিপক্ষে বাঁ-হাতের ১৪ সেলাই নিয়ে খেলেন মাশরাফি।

ম্যাশের হাত দেখছেন গেইল।ছবি: বিসিবি

নিজের ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে এসে হয়তো মাশরাফিকে সামান্য এই ইনজুরি তাকে ভাবায় না। কিন্তু পেশাদারিত্বের বিচারে মাশরাফির এই সিদ্ধান্তকে সঠিক মনে করছেন না অনেকে। কারণ শুধু নেতৃত্ব দিয়ে ম্যাচ ঘুরিয়ে দেওয়া কঠিন।

সামাজিক মাধ্যমে চলছে মাশরাফির পক্ষে-বিপক্ষে মত। 

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শেষ ম্যাচে হাতে ইনজুরি নিয়ে খেলায় মাশরাফি মর্তুজা তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের টক অব দ্য কান্ট্রি।

তবে হাতে চোট পাওয়ার পরপরই ম্যাচটি মাশরাফি খেলবেন বলে ঠিক করে ফেলেছিলেন। মাশরাফির ভাই মোরসালিন ফেসবুক পোস্ট দেন যে, পরের ম্যাচে মাশরাফি খেলবেন নিশ্চিত করেছেন।

সামাজিক মাধ্যমে ঘুরছে মাশরাফির এই ছবি। সামাজিক মাধ্যম থেকে নেওয়া ছবি।

তবে ভক্তরা মনে করছেন হাতে ১৪ সেলাই নিয়ে নামা উচিত হয়নি তার। অনেকে অবশ্য মাশরাফির সাহসকে বাহবা দিচ্ছেন। নিবেদনকে প্রশংসা করছেন। চট্টগ্রামের উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলের ক্যাচটাকে বলছেন অসাধারণ।

মাশরাফিকে নিয়ে ভক্তরা।

ওই ক্যাচ নিয়ে মাশরাফি বলেন, 'সুযোগ ছিল না দুই হাত দেওয়ার। খেলার সময় ওভাবে একহাত চলে যায়। ক্যাচটা নিতে পেরেছি বলটা স্লো আসছিল বলে।' টসের সময় দেখা যায় মাশরাফির হাতটা খুটিয়ে দেখছেন চট্টগ্রাম অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ।

মাশরাফির চোট আক্রান্ত হাত দেখছেন মাহমুদুল্লাহ। ছবি: বিসিবি

তিনি এ নিয়ে বলেন, 'মাশরাফি বলেই ১৪টি সেলাই নিয়ে খেলেছেন। আমি হলে চিন্তাও করতে পারতাম না। উনি খেলেছেন, ভালো বোলিং করেছেন। ভালো একটি ক্যাচও নিয়েছেন। গেইলের শটটি অনেক স্পিন করছিল।'