ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে। তার অবসর নিয়ে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী থেকে শুরু করে ভারতের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী পর্যন্ত মতামত দিয়েছেন। 

এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়েছেন ধোনি, যা প্রশ্ন তুলে দিল তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার নিয়েই। ২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের পর আর মাঠে নামেননি ধোনি। চুক্তি থেকে বাদ পড়ায় আর কখনও তাকে জাতীয় দলের হয়ে দেখা যাবে কিনা, তা নিয়েই সংশয় তৈরি হয়ে গেল।

বিশ্বকাপ শেষে অনির্দিষ্টকালের জন্য ছুটিতে চলে যান ৩৮ বছর বয়সী এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। জাতীয় দল তো বটেই, কোনো ধরনের ক্রিকেটেই অংশ নেননি তিনি। এ ছুটির কারণেই তার ক্যারিয়ার নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। কবে তিনি অবসরে যাচ্ছেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিরাট কৌতূহল। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে মুখ খোলেননি ধোনি। প্রশ্ন করা হয়েছিল বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীকেও। তিনি জানিয়েছিলেন, ধোনির সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তবে ক'দিন আগে ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী বলেছিলেন, শিগগিরই ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ইতি টানতে পারেন ধোনি। তবে টি২০ বিশ্বকাপের দলে তিনি স্থান পাবেন কিনা, তা নির্ধারিত হবে আইপিএল পারফরম্যান্সের ওপর। ভারতের প্রধান নির্বাচক এমএসকে প্রসাদও বলেছিলেন, পারফর্ম করেই জাতীয় দলে ফিরতে হবে সাবেক অধিনায়ককে। তবে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দিয়ে বিসিসিআই সম্ভবত বর্ষীয়ান এ ক্রিকেটারকে বিদায়ের বার্তাই দিয়েছে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন ধোনি। ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ওয়ানডে নেতৃত্বে ছাড়েন। গতবছর বিসিসিআইর কেন্দ্রীয় চুক্তিতে 'এ' গ্রেডে ছিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ঘোষিত ২০১৯ সালের অক্টোবর থেকে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বোর্ডের চুক্তিতে ঠাঁই হলো না তার। বিসিসিআইর কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ২৭ জন ক্রিকেটার রয়েছেন। বার্ষিক সাত কোটি রুপি পারিশ্রমিকের 'এ প্লাস' গ্রেডে আছেন বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা ও জাসপ্রিত বুমরাহ। বার্ষিক পাঁচ কোটি রুপির 'এ' গ্রেডে আছেন রবিচন্দ্র অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, চেতেশ্বর পুজারা, আজিঙ্কা রাহানে, লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা, কুলদীপ যাদব, ঋষভ পন্থ। বার্ষিক তিন কোটি রুপির 'বি' গ্রেডে আছেন ঋদ্ধিমান সাহা, উমেশ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, হার্দিক পান্ডিয়া, মায়াঙ্কা আগারওয়াল। আর বার্ষিক ১ কোটি রুপির 'সি' গ্রেডে আছেন কেদার যাদব, নবদীপ সাইনি, দীপক চাহার, মানিশ পান্ডে, হনুমা বিহারি, শার্দুল ঠাকুর, শ্রেয়স আয়ার, ওয়াশিংটন সুন্দর। ধোনির মতো চুক্তি থেকে বাদ পড়েছেন দিনেশ কার্তিক, আম্বাতি রাইডু ও খলিল আহমেদ।