যে কারণে দলে এতো কাটা-ছেঁড়া

প্রকাশ: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় দফায় একমাত্র টেস্টের  দলে ছিলেন ১৪ ক্রিকেটার। তবে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট সিরিজের জন্য ১৬ সদস্যের দল দিয়েছেন বিসিবির নির্বাচকরা। এই দলে নতুন মুখ দু’জন। দল থেকে বাদ পড়েছেন চারজন। আবার দলে ঢুকেছেনও চারজন।

সব মিলিয়ে টেস্ট দলে এসেছে বড় পরিবর্তন। পাকিস্তান সফরে যাওয়া সৌম্য সরকার, রুবেল হোসেন, আল আমিন হোসেন এবং মাহমুদুল্লাহ দল থেকে বাদ পড়েছেন। সৌম্য দলের বাইরে বিয়ের কারণে। দলে ফিরেছেন পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ, স্পিনার মেহেদি মিরাজ এবং ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

এছাড়া জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে একমাত্র টেস্টের দলে নতুন মুখ হিসেবে আছেন পেসার হাসান মাহমুদ এবং ইয়াসির রাব্বি। দলের পরিবর্তন নিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘আমাদের মনে হয়েছে, লাল বলের ক্রিকেট থেকে মাহমুদুল্লাহর বিশ্রাম দরকার।’

আল আমিনকে নিয়ে নান্নু বলেন, ‘তার ইনজুরি আছে। সংক্ষিপ্ত সংস্করণের ক্রিকেটের জন্য তাকে প্রস্তুত হতে বলা হয়েছে। তাকে ওই সংস্করণে আমাদের বেশি দরকার। আর এই মুহূর্তে রুবেল আমাদের টেস্টের নেই।’ সৌম্যর ছুটির বিষয়টিও উল্লেখ করেন তিনি।

নতুন মুখ হিসেবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ডাক পাওয়া ইয়াসির আলী এবং হাসান মাহমুদকে নিয়ে প্রধান নির্বাচক জানান, ‘আমাদের মনে হয়েছে, হাসান মাহমুদ এবং ইয়াসির রাব্বি দলে খুবই কার্যকর হবে। এছাড়া তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে দলে নেওয়া হয়েছে।’ নান্নু জানান, পরিস্থিতি বিবেচনায় তারা সম্ভব্য সেরা দল বেছে নিয়েছেন। দলে অভিজ্ঞতা এবং কার্যকর ক্রিকেটারের সমন্বয় আছে। ভারসাম্যপূর্ণ এবং ধারাবাহিক দল গড়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।