ব্যাটিং অনুশীলন ভালোই হলো জিম্বাবুয়ের

প্রকাশ: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০     আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: বিসিবি

ছবি: বিসিবি

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতে রাতারাতি নায়ক বনে গেছেন আকবর আলী-শরিফুল ইসলামরা। নিজ এলাকায় পাচ্ছিলেন শুভেচ্ছা-সংবর্ধনা। সঙ্গে বিশ্রামও। কিন্তু জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য বাংলাদেশ যুবা বিশ্বকাপের দলে থাকা ছয়জনকে ডেকে আনা হয়। সঙ্গে এইচপি দলের আল আমিন-মুকিদুলদের নিয়ে গড়া হয় বিসিবি একাদশ। তাদের বিপক্ষে প্রথম দিন ৭ উইকেট হারিয়ে ২৯১ রান তুলেছে জিম্বাবুয়ে।

অনুশীলন ম্যাচে সফরকারী দল টস হারলেও অনেক সময় শুরুতে ব্যাটিং চেয়ে নেয়। জিম্বাবুয়ে তাই টসও করল না। টস ছাড়াই আগে ব্যাট করল তারা। শুরুটা তারা দারুণ করে। কোন উইকেট না হারিয়ে তুলে ফেলে ১০০ রান। এরপর প্রিন্স মাসভুরে আউট হন অধিনায়ক আল আমিনের স্পিনে। আর কেভিন কাসুজা উঠে যান রিয়াটার্ড হার্ট হয়ে।

এরপর যুব বিশ্বকাপ জিতে আসা স্পিন অলরাউন্ডার শাহাদাত হোসেন জিম্বাবুয়ে সিরিজে আঘাত হানেন। তিনি তুলে নেন ক্রেগ আরভিন, রেগিস চাকাভা এবং মুজুমবানিকে। রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে উঠে যাওয়া ওপেনার কাসুজাকে আবার ব্যাটিংয়ে নামতে হয়। তিনি ৭০ রান করে আউট হন। দুইশ’রানের আগে (১৭৭ রানে) জিম্বাবুয়ের ৬ উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) একাদশ।

এরপর ২২৬ রানে ৭ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। এরপর সন্ধ্যাটা লোয়ার অর্ডারের ব্যাটসম্যান নিয়ে দারুণভাবে পার করে দেয়। কার্ল মুম্বা ৫৪ রান করে দিন শেষ করেন। তাকে সঙ্গ দিয়ে এন্ডিলব ২৫ রান করেন। বিসিবি একাদশের হয়ে শাহাদাত তিন উইকেট নেন। অন্য স্পিনার আল আমিন নেন দুটি উইকেট। যুবা বিশ্বকাপ জয়ী শরিফুল ইসলাম এক উইকেট তুলে নেন।