আম্পায়ারের সহযোগিতায় ডাবল সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন শচীন!

প্রকাশ: ১৭ মে ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

ছবি: ফাইল

ছবি: ফাইল

শচীন টেন্ডুলকারের ওয়ানডে ডাবল সেঞ্চুরি নিয়ে প্রশ্ন তুললেন প্রোটিয়া পেসার ডেল স্টেইন। প্রশ্ন তুললেন ওই ম্যাচের আম্পায়ার ইয়ান গোল্ডকে নিয়েও। স্টেইনের মতে, শচীনকে এলবিডব্লিউ করেছিলেন তিনি। কিন্তু আম্পায়ার দর্শকদের দুয়ো শোনার ভয়ে আউট দেননি। সেজন্যই শচীন ওয়ানডে ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তি গড়তে পেরেছিলেন। 

ছেলেদের ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেন শচীন টেন্ডুলকার। এরপর বিরেন্দ্র শেবাগ, রোহিত শর্মা, ক্রিস গেইল কিংবা মার্টিন গাবটিলরা ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পান।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শচীনের ওই ডাবল সেঞ্চুরি নিয়ে স্কাইস্পোর্টসের পোডকাস্টে ইংলিশ পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের সঙ্গে আলাপচারিতায় স্টেইন গুরুতর ওই অভিযোগ তুলেছেন।

তিনি বলেন, “শচীন টেন্ডুলকার আমাদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন। আমার মনে আছে ওই ম্যাচে, ১৯০ রানের  ঘরে থাকা শচীনকে আমি এলবিডব্লিউ করেছিলাম। কিন্তু আম্পায়ার ইয়ান গোল্ড আউট দেননি।

আমি তাকে প্রশ্ন করেই বসলাম, এটা আউট নয় কেন? উনি স্টেডিয়ামের দিকে তাকানোর ইঙ্গিত করে বললেন, ‘একবার তাকিয়ে দেখো। আমি আউট দিলে আর হোটেলে ফেরা হবে না।”

কিন্তু ওই ম্যাচের দিকে তাকালে অবশ্য স্টেইনের অভিযোগের সঙ্গে কোন মিল পাওয়া যাবে না। শচীন যখন ১৯০ এর ঘরে ছিলেন তখন তার পায়ে কোন বল লাগেনি। ওই সময় স্টেইনের মাত্র তিনটি বলের মুখোমুখি হন ওয়ানডে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক শচীন। তিনটিই ব্যাট দিয়ে খেলেন তিনি।

এছাড়া স্টেইন ওই ম্যাচে শচীনকে ৩১ বল করলেও এলবিডব্লিউয়ের জোরালো আবেদন তুলতে পারেননি একবারও। ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারিতে ওই ডাবল সেঞ্চুরি করার পথে শচীন ১৪৭ বল খেলেন। সেখানেও জোরালো এলবিউব্লিউয়ের আবেদন ওঠেনি। শচীন ওই ইনিংস খেলার পথে ২৫টি চার ও তিনটি ছক্কা হাঁকান।