দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে নিজেদের আইপিএলের আসর শুরু করেছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। মায়াঙ্ক আগারওয়ালের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জয় দেখছিল কিংসরা। শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েও মায়াঙ্ক খেলেছেন ৬০ বলে ৮৯ রানের ইনিংস। কিন্তু ম্যাচ নির্ধারিত ওভারে টাই হওয়ায় সুপার ওভারে গড়ায়। সেখানে জিতে যায় দিল্লি।

কিন্তু আম্পায়ার ভুল না করলে ম্যাচটা সুপার ওভারে গড়াতো না। মায়াঙ্ক আগারওয়াল দুর্দান্ত ইনিংস খেলার ফল পেতেন। জয় পেতে পারতো কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ম্যাচের ১৮.৫ ওভারে মায়াঙ্ক বল ঠেলে তুলে নেন ২ রান। কিন্তু ক্রিস জর্ডান ক্রিজের লাইনে ব্যাট ছোঁয়াতে পারেননি বলে রায় দেন আম্পায়ার নীতিন মেনন।

অথচ টিভি রিপ্লিতে দেখা গেছে দুই রানই পূর্ণ করেছেন দুই ব্যাটসম্যান। ম্যাচ শেষে তাই কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অন্যতম সত্ত্বাধিকারী প্রীতি জিনতা নিজের কষ্টের কথা বলেছেন। টুইট করেছেন, ‘এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যে খুব উৎসাহ নিয়ে এখানে (আরব আমিরাতে) এসেছি। পাঁচটি করোনা পরীক্ষা দিয়েছি। হাসি মুখে ছয় দিন কোয়ারেন্টাইনে থেকেছি। অথচ একটা শর্ট রানের সিদ্ধান্ত আমরা হৃদয় ভেঙে দিয়েছে।

যদি ঠিকঠাক ব্যবহার না হয় তাহলে প্রযুক্তি থাকার মানে কী? বিসিসিআইয়ের উচিত এখনই নতুন নিয়ম করে দেওয়া। প্রতি বছরই এমন ভুল হতে দেখা যাচ্ছে।’ বিরেন্দ্র শেবাগ তো খোঁচা দিয়েই বলেছেন, ‘যে আম্পায়ার এই শর্ট রানের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন, তাকেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার পাওয়া উচিত।’