বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের তরুণ নরওয়ে স্ট্রাইকার অ্যারলিং হ্যালন্ড ২০২০ গোল্ডেন বয় অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন। ক্লাব সতীর্থ জাদন সানকো, বায়ার্ন তরুণ আলফনসো ডেভিস, ম্যানইউয়ের ম্যাসন গ্রিনউড এবং বার্সার আনসু ফাতিদের মতো তরুণদের হটিয়ে এই পুরস্কার জিতেছেন তিনি।

ইতালির সংবাদ মাধ্যম 'টুট্টো স্পোর্টস' প্রতিবছর ২১ বছরের মধ্যে ইউরোপের সেরা পারফরমারদের মধ্যে থেকে একজনকে এই পুরস্কার দেয়। একবার কেউ পুরস্কার পেলে পরের বছর তিনি আর পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা পান না।

গত বছর গোল্ডেন অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন পর্তুগালের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ সেনসেশন জোয়াও ফেলিক্স। নতুন রোনালদো খ্যাত এই তরুণ চলতি মৌসুমেও আছেন দুর্দান্ত ছন্দে। কিন্তু এবার তালিকায় নাম ছিল না তার। তার আগের বছর বিশ্বকাপ জিতে গোল্ডেন বয় অ্যাওয়ার্ড বগলদাবা করেন ফ্রান্সের পিএসজি স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপ্পে।

হ্যালন্ড ২০১৯-২০ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে করেছেন ৪৪ গোল। এর মধ্যে জানুয়ারির দলবদলের মৌসুমে অস্ট্রিয়ার ক্লাব রেড বুলস সলসবার্গ থেকে ডর্টমুন্ডে এসে তিনি করেছেন ১৬ গোল। বুন্দেসলিগায় অন্তত ১০ গোল করেছেন এমন ফুটবলারদের মধ্যে বায়ার্নের রবার্ট লেভানডভস্কির চেয়ে দ্রুততম সময়ে গোল করার রেকর্ডও করেছেন তিনি।

আগামী মৌসুমের শুরুতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করা হ্যালন্ডের রিয়াল মাদ্রিদে যাওয়ার গুঞ্জন আছে। তাকে কিনতে লস ব্লাঙ্কোসদের ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচা হতে পারে বলে সংবাদ মাধ্যম থেকে ধারণা পাওয়া গেছে। স্প্যানিশ জায়ান্টরা অবশ্য হ্যালন্ডকে কিনবেন নাকি এমবাপ্পেকে সেই সিদ্ধান্তের দ্বন্দ্বে পড়ে যেতে পারে।