পাকিস্তানের ক্রিকেট অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তা, শারীরিক নির্যাতন ও বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক তরুণী। শনিবার সংবাদ সম্মেলেন করে এই বাবরের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ তুলেছেন ওই তরুণী।

তিনি জানান, পুলিশের কাছে অভিযোগ দিয়ে কোনও ফলাফল না পেয়ে বাধ্য হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসেছেন তিনি। খবর ডিএনএ ইন্ডিয়া ডটকমের।

বর্তমান সময়ের অন্যতম প্রতিভাবান ক্রিকেটার বাবর আজম। কিন্তু ক্যারিয়ারের এই মধ্যগগনেই তার বিরুদ্ধে এমন বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন ওই তরুণী। তিনি জানান, বাবর তার স্কুল সময়ের বন্ধু। বছরের পর বছর বাবর তাকে ব্যবহার করেছেন, নিজের যাবতীয় খরচের টাকা নিয়েছেন। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করেছেন। বাবরের ধর্ষণে তিনি একবার অন্তঃসত্ত্বাও হয়ে পড়েছিলেন।

ওই তরুণী বলেন, পাকিস্তানের তারকা ব্যাটসম্যানের সঙ্গে তার সম্পর্ক ২০১০ সাল থেকে। তখনও বাবরের এত খ্যাতি ছিল না। স্কুলে পড়ার সময়ই বাবর তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন। এমনকী, তারা পালিয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্তও নিয়েছিলেন। কিন্তু তারই মধ্যে জাতীয় দলে ডাক পেয়ে যান বাবর। এরপরই বিয়েতে বেঁকে বসেন তিনি।

ওই তরুণী আরও দাবি করেন, এই ঘটনা প্রকাশ না করতে তাকে অনবরত হুমকি দিতেন বাবর। তাকে মারধরের পাশাপাশি খুনের হুমকিও দেওয়া হয়েছে

তবে এ বিষয়ে এখনও মুখ খোলেননি বাবর। এই মুহূর্তে দলের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড সফরে আছেন তিনি।