আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সাময়িক অবসর নিয়েছেন পাকিস্তানের বাঁ-হাতি পেসার মোহাম্মদ আমির। কিন্তু জানিয়ে রেখেছেন, জাতীয় দলে তিনি ফিরতে চান। পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে তার ঝামেলার কথাও সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন। এবার আমির জানালেন, পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্ট সরে গেলেই দেশের জার্সিতে ফেরার সিদ্ধান্ত নেবেন তিনি।

পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন করা আমিরের অবসর নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে নানান কথা উঠছে। ছড়ানো হচ্ছে বিতর্ক। সেই বিতর্ক থামাতে এবং তার জাতীয় দলের ফেরার সম্ভাবনার কথা পরিষ্কার করতে আমির এক টুইট বার্তায় টিম ম্যানেজমেন্টের সরে যাওয়ার কথা জানান।

এর আগে পাকিস্তান পেসার 'মানসিক' অত্যাচারের' কথা তুলে অবসরের ঘোষণা দেন। সেখানে পাকিস্তান কোচ মিসবাহ উল হক তার ফর্মহীনতার কারণে সামনের কয়েক সিরিজ দলে বিবেচনা করবে না বলে উল্লেখ করা হয়। পাকিস্তান বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনূস এ নিয়ে বলেন, টিম ম্যানেজমেন্টের কেউ আমিরকে দলে নেওয়ার পক্ষে না।

পাকিস্তানের সর্বশেষ শিরোপা চ্যাম্পিয়নস ট্রফির নায়ক আমির তাই হেড কোচ মিসবাহ উল হক, বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনূস ও বাকি চার কোচের দিকে আঙুল তুলেছেন। এছাড়া অধিনায়ক বাবর আজমও বাঁ-হাতি এই পেসারকে দলে চায় না বলে খবর। তবে আমিরের আঙুল সবার দিকে নয়।

তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, আর কেউ না হোক তার বাদ পড়ার বিষয়টি মিসবাহ উল হক পরিষ্কার করেতে পারতেন। অবশ্য পাকিস্তানের এই টিম ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব চালিয়ে নেওয়া নিয়েও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। শোয়েব আখতার অনেকটা নিশ্চিত করেই বলেছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে সিরিজ হারলেই মিসবাহ-ওয়াকারকে বরখাস্ত হবেন।