সর্বোচ্চ পর্যায়ের ফুটবলে খেলার সক্ষমতা নেই বলে লুইস সুয়ারেজকে ক্লাব ছাড়তে বলেছিল বার্সেলোনা। কথাটা দাগ কেটেছিল উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের মনে। তার মতে, বার্সার কিছু পরিবর্তন দরকার ছিল। কিন্তু ছয় মৌসুম সমান তালে খেলে যাওয়ার জন্য তার কিছুটা সম্মান প্রাপ্য ছিল। 

বার্সায় থাকাকালীন মেসিকে ছাড়িয়ে লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন সুয়ারেজ। চলতি মৌসুমে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন সাবেক লিভারপুল স্ট্রাইকার। লিগে এখন পর্যন্ত করেছেন সর্বোচ্চ গোল। সুয়ারেজ যেন তার প্রতি অসম্মানের জবাব দিয়ে চলেছেন।

ফ্রান্স ফুটবলকে বার্সা ছাড়ার তিক্ততা নিয়ে সুয়ারেজ বলেন, 'আমার সবচেয়ে মেজাজ খারাপ হয়েছিল, যখন তারা (বার্সা) বলেছিল, আমি বুড়ো হয়ে গেছি। শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলে খেলার সক্ষমতা নেই আমার। যদি এমন হতো, বার্সার হয়ে আমি তিন-চার মৌসুম খেলিনি, তাহলে কথাটা মানতাম। কিন্তু বার্সায় আমি প্রতি মৌসুমে অন্তত ২০ গোল করেছি। মেসির পরেই থাকত আমার গোল সংখ্যা।'

সুয়ারেজের বয়স হয়ে গেছে ৩৪ বছর। তারপরও অ্যাথলেটিকোর মতো গতিময় ফুটবলের সঙ্গে দারুণভাবে মানিয়ে নিয়েছেন তিনি। অথচ বার্সার সঙ্গে তরুণ অনেক প্রতিভাবান মানিয়ে নিতে পারছেন না। এ নিয়ে সুয়ারেজ বলেন, 'এখন বোঝা যাচ্ছে, বার্সায় খেলা সহজ নয়। অনেক খেলোয়াড়ই প্রত্যাশা মেটাতে পারছেন না। আমি বার্সায় ছয় মৌসুম পত্যাশা মিটিয়েই খেলেছি।'

সুয়ারেজ জানিয়েছেন, বার্সেলোনা কোন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল সেটা তিনি বুঝতে পেরেছিলেন। দলের পরিবর্তন দরকার ছিল। ক্লাব ছাড়তে বলার সিদ্ধান্ত তাই তিনি মেনেও নিয়েছিলেন। কিন্তু তার কিছু সম্মান প্রাপ্য ছিল। তিনি তাই অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন। নিজের যোগ্যতাও প্রমাণ করেছেন সাবেক বার্সা তারকা।