নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে বিধ্বস্ত হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। জাগায় জয়ের প্রবল সম্ভাবনা। তবে দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও নতুন বলে কিউই পেসারদের ঠিক মতো সামলাতে পারেনি টাইগাররা। ডাক মেরে লিটন দাস ফেরার পর ধীর ব্যাটিং করেছেন তামিম ইকাবাল ও সৌম্য সরকার।

বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ জন লেইস তাই নতুন বলে ব্যাটসম্যানদের থেকে আরও দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের দাবি জানিয়ে রাখলেন। তার মতে, নতুন বলে বেশি উইকেট না হারিয়ে ঠিক মতো খেলতে পারলে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচেও প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবে দল।

তিনি বলেন, ‘আমার মতে, বাংলাদেশের জন্য বাইরের মাটিতে খেলার বড় চ্যালেঞ্জ হলো ভালো পেস বোলারদের বিপক্ষে নতুন বলে বাউন্সের বিপক্ষে ভালো ব্যাটিং করা। আমরা শুরুতে ব্যাটিং করলে তাই  ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদি যদি দলে আসেন তাদের বিপক্ষে একটু চিন্তা নিয়েই খেলতে হবে। শুরুতে যেন খুব বেশি উইকেট না হারায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আবার যদি বড় রান তাড়া করতে হলে, পাওয়ার প্লের সঠিক ব্যবহার করতে হবে। কিছুটা ঝুঁকি নিয়ে শট খেলতে হবে।’

জন লেইস জানান, ডানেডিনের থেকে ক্রাইস্টচার্চে ব্যাটিংয়ে উন্নতি করেছে বাংলাদেশ দল। শেষ পর্যন্ত না জেতায় হতাশ ব্যাটিং কোচ। তবে দল সঠিক পথে থাকায় খুশি তিনি। এছাড়া দ্বিতীয় ম্যাচে দল শুরুর দশ ওভারে খুব বেশি রান না করলেও সেটা ক্ষতির কারণ হয়নি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

লেইস বলেন, ‘তামিম দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। তার সঙ্গে সৌম্যর ভালো জুটি হওয়ার কারণে মিঠুন হাত খুলে খেলতে পেরেছে। বল বুঝে খানিকটা লাইনে এগিয়ে গিয়ে অফ সাইডে বল বেশি না খেলে লেগ সাইডে খেলেছে। তার ইনিংসটা ছিল অসাধারণ।’