বাংলাদেশ জাতীয় দলের বাঁ-হাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান আইপিএলে খেলার জন্য বোর্ডের থেকে ‘নো অবজেকশন সার্টিফিকেট’ পেয়ে গেছেন। আগামী ৯ এপ্রিল শুরু হওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক ভারতীয় এই টি-২০ লিগে খেলতে তাই আর বাঁধা নেই কাটার মাস্টারের।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু সংবাদ মাধ্যম ক্রিকবাজকে জানান, মুস্তাফিজকে এপ্রিলে শ্র্রীলংকার মাটিতে অনুষ্ঠিত দুই টেস্টের সিরিজের জন্য তারা বিবেচনা করছেন না। ফিজ তার বদলে আইপিএলে খেললে উপকৃত হবেন বলে মনে করছেন তারা।

নান্নু বলেন, ‘আমরা শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজের জন্য মুস্তাফিজকে বিবেচনা করছি না। ওই সময় সে আইপিএল খেললে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবে। এটাই তার জন্য ভালো হবে। সেজন্য আমরা তাকে ছাড়পত্র দিচ্ছি।’ মুস্তাফিজকে এবারের আইপিএল নিলামে ১ কোটি রুপিকে দলে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস।

বাংলাদেশের আরেক তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান এরই মধ্যে আইপিএল খেলতে দেশ ছেড়েছেন। কলকাতার হয়ে খেলবেন তিনি। তবে শ্রীলংকা সফর বাদ দিয়ে সাকিবের আইপিএল খেলা নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। সাকিব ছাড়পত্র চাওয়ায় বিসিবির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল যে, টেস্ট খেলতে চান না সাকিব।

এরপর বোর্ডের ওপর ঝাল ঝাড়েন দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব। বোর্ডও চুপ করে থাকেনি। সাকিবের ছাড়পত্র প্রত্যাহার করা হবে বলে বোর্ডের পক্ষ থেকে হুশিয়ারি দেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত সাকিবের দৃঢ়তার কাছে চুপসে গেছে বোর্ড। পরিষ্কার করে গেছে মুস্তাফিজের আইপিএলে খেলার পথও।