নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের দ্বিতীয়টিতেও হেরেছে বাংলাদেশ। এক ম্যাচ থাকতে সিরিজ হেরেছে ২-০ ব্যবধানে। তবে নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে হার-জিত ছাপিয়ে আলোচনায় ডিআরএস (বৃষ্টি আইন)।

টস হেরে ব্যাট করা নিউজিল্যান্ডের ইনিংসে বৃষ্টি বিঘ্ন ঘটিয়েছে দু'বার। শেষ পর্যন্ত তাই ১৭.৫ ওভারে ১৭৩ রানে কিউইদের ইনিংস থামানো হয়। এ পর্যন্ত ঠিকই ঠিল। গোল বাধে বাংলাদেশের জয়ের লক্ষ্য নির্ধারণ করার সময়।

বাংলাদেশের দুই ওপেনার লিটন দাস ও নাঈম শেখ ব্যাট করতে নামেন ১৬ ওভারে ১৪৮ রানের লক্ষ্য নিয়ে। কিউই ক্রিকেট বোর্ডের অফিসিয়াল টুইটার পেজ ব্ল্যাক ক্যাপসেও বিষয়টি নিশ্চিত করে টুইট করা হয়। কিন্তু খেলা ১.৩ ওভার মাঠে গড়ানোর পরই পাঁচ মিনিটে থামিয়ে রাখা হয়। করণ বাংলাদেশের জয়ের লক্ষ্য নির্ধারণে ভুল হয়েছে।

ছবি: টুইটার

সেটা তাই বাড়িয়ে করা হলো ১৬ ওভারে ১৭০ রান। নতুন টার্গেটও টুইট করে ব্ল্যাক ক্যাপস অ্যাকাউন্ট। কিন্তু সেটাও পরিবর্তন করা হয়। শেষ পর্যন্ত জয়ের জন্য লক্ষ্য নির্ধারণ করা হলো ১৭১ রান। বাংলাদেশ তাই ১৪২ রান তুলেও বৃষ্টি আইনে হেরেছে ২৮ রানে।

কিন্তু কেন এমন ভুল। ধারণা করা হচ্ছে, কিউইরা ২০ ওভার ব্যাটিং করেছেন সেই হিসেব ধরে ডিআরএস পদ্ধতি ঠিক করা হয়েছে। নয়তো ১৭.৫ ওভারে যে রান তুলেছিল ধরা হয়েছে সেই হিসেবে। ওদিকে বাংলাদেশ দল জয়ের লক্ষ্য কত সেটা না জেনেই নাকি ব্যাট করতে নেমে পড়েছিল। ম্যাচ শেষে মাহমুদুল্লাহও বলেছেন, তারা জানতেন না লক্ষ্য কতো।

পেশাদার ক্রিকেটে এমন ভুল মেনে নিতে পারছেন না কিউই পেস অলরাউন্ডার জেমি নিশাম। তিনি তাই টুইট করেছেন, 'লক্ষ্য কতো না জেনেই ব্যাটিংয়ে নেমে পড়া কিভাবে সম্ভব? পাগল নাকি!'