করোনায় বিপর্যস্ত ব্রাজিল। প্রায় পৌনে ৪ লাখ মানুষ মহামারি  এই ভাইরাসে  প্রাণ হারিয়েছেন। সেইসঙ্গে আর্থিকভাবেও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে লাতিন আমেরিকার এই দেশটি।

এতে করে কাজ হারিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। দেশের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে এগিয়ে এসেছেন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। এক বছর ধরে বন্ধ থাকলেও নিজ প্রতিষ্ঠানের ১৪২ জন কর্মীকে নিয়মিত বেতন দিয়ে যাচ্ছেন নেইমার।

অসহায় ও দুস্থ শিশুদের দেখভাল করার জন্য নেইমার জুনিয়র ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেছেন নেইমার। যেই প্রতিষ্ঠানটি ব্রাজিলের প্রেইয়া গ্রান্দে অঞ্চলে প্রায় ৩ হাজার দুস্থ শিশুকে দেখভাল করে আসছে। কিন্তু গত বছর করোনা ভাইরাসের কারণে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যায়। এখনো পর্যন্ত কোনো কাজ হচ্ছে নেইমার জুনিয়র ইনস্টিটিউটে। নিজ প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও কর্মীদের বেতন দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। প্রতি মাসেই ১৪২ জন কর্মীকে বেতন দিচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান এ তারকা। আর এ কাজের জন্য প্রতি মাসে ৯০ হাজার ইউরো খরচ হচ্ছে নেইমারের। 

এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নেইমারের মুখপাত্র ও তার বাবা নেইমার সিনিয়র,'আমি এবং আমার পরিবার পুরো বিষয়টি সামাল দিচ্ছি। এখানের ১৪২ কর্মীর সবাই তাদের বেতন এবং অন্যান্য সুবিধার সবই পাচ্ছেন। নিজেদের অর্থ সম্পদ থেকে এর ব্যবস্থা করেছি আমরা। যতদিন এই মহামারি চলবে ততদিন আমরা প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের দেখব। তাদের বেতন নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হবে না।'


মন্তব্য করুন