করোনার মধ্যে আইপিএল আয়োজন চালিয়ে যাওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বিরুদ্ধে ১ হাজার কোটি রুপির মামলা করেছেন এক আইনজীবী।

বন্দনা শাহ নামের ওই আইনজীবী মুম্বাই হাইকোর্টে জনস্বার্থে এ মামলা করেছেন।

মহামারি বিধ্বস্ত ভারতে যেখানে মানুষের মৃত্যুমিছিল চলছে, সেখানে বিসিসিআই কী করে 'চোখ-কান বন্ধ করে' নিজেদের 'অহঙ্কারী মানসিকতা' দেখিয়ে আইপিএল চালিয়ে গেল! এমনই প্রশ্ন তুলেছেন বন্দনা। 

তিনি বলেন, বোর্ডের অবিলম্বে সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেওয়া উচিত। বন্দনা তার জনস্বার্থ মামলার নথিপত্রে উল্লেখ করেছেন, শুধু ক্ষতিপূরণ বাবদই ১০০০ কোটি টাকা নয়, বিসিসিআই যেন আরও হাজার কোটি অর্থ দেয় কভিড আক্রান্ত মানুষদের অক্সিজেন এবং ওষুধের জন্য ব্যয় করার স্বার্থে।

সমালোচনা আর কভিড উপেক্ষা করেই আইপিএল চলছিল। অলিম্পিকে ভারতের হয়ে একমাত্র ব্যক্তিগত সোনাজয়ী শুটার আই এস বিন্দ্রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছিলেন, করোনায় যখন গোটা দেশ পর্যুদস্ত, তখন আইপিএল চালিয়ে যাওয়ার মানেই হলো বিসিসিআই কর্তারা চোখ বন্ধ করে রেখেছেন।

এর আগে অনেকেই তাদের এই কাণ্ডকারখানা দেখে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। এরপরও আইপিএলের সূচি অনুযায়ী চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর ছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। সে অনুযায়ীই সবকিছু হচ্ছিল।

সমালোচনা আর কভিড উপেক্ষা করেই আইপিএল চলছিল। সম্প্রতি কলকাতা নাইট রাইডার্সের দুই ক্রিকেটার  ও চেন্নাই সুপার কিংসের বোলিং কোচসহ আরও তিন সাপোর্ট স্টাফের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরে আইপিএল স্থগিত করে দিতে বাধ্য হয় বিসিসিআই।


বিষয় : জনস্বার্থ মামলা আইপিএল বিসিসিআই

মন্তব্য করুন