জমে উঠেছে ইউরো কাপের শেষ দিকের সমীকরণ। ইতোমধ্যেই ছয়টি দল পৌছে গেছে নকআউট পর্বে। তারা হচ্ছে ইতালি, হল্যান্ড, বেলজিয়াম, ডেনমার্ক অস্ট্রিয়া, সুইজারল্যান্ড। সুইজারল্যান্ড তৃতীয় সেরা দল হিসেবে নকআউটে। নকআউট প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে ইংল্যান্ড, সুইডেন, ফ্রান্স, চেক প্রজাতন্ত্রও। ফেভারিটদের মধ্যে এখনো শেষ ষোলো নিশ্চিত করতে পারেনি স্পেন, পর্তুগাল ও জার্মানি।

আজ রাত ১টায় বুদাপেস্টের পুসকাস অ্যারেনা স্টেডিয়ামে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হবে দিদিয়ের দেশমের শিষ্যরা। 

চলতি ইউরো আসরে উড়ন্ত সূচনা হয়েছে পর্তুগাল-ফ্রান্সের। যদিও জয় ধরে রাখতে পারেনি এই দুই দল। হাঙ্গেরির বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ের পর জার্মানির কাছে বিধ্বস্ত হতে হয়েছিল রোনালদোদের। পর্তুগিজ অধিনায়কের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ছন্দহীন হয়ে পরে দেশমের শিষ্যরা। জার্মানির দ্রুতগতির পারফরম্যান্সে এরপর দাঁড়াতেই পারেনি পর্তুগিজরা। যদিও একটি গোল পরিশোধ করে পর্তুগাল। ৪-২ গোলের হারের স্মৃতি নিয়ে মাঠে নামবে পর্তুগিজরা। 

ফ্রান্সের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে কঠিন সমীকরণে পর্তুগাল। জিতলে সরাসরি নকআউট নিশ্চিত হবে। নক আউটে যেতে গেলে পর্তুগালকে ফ্রান্সের কাছে ২ গোলের বেশি ব্যবধানে হারা যাবে না। যদি ২ গোল কিংবা তার কম ব্যবধানে ফ্রান্সের কাছে হারে, তখন 'ডি' ও 'ই' গ্রুপের ম্যাচে যাই ফলাফল হোক না কেন, নক আউটে পৌঁছে যাবেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরা।

যদি ৩ গোলে বা তার বেশি গোলে হারে তখন 'ডি' ও 'ই' গ্রুপের ম্যাচের উপর নির্ভর করতে হবে রোনালদোদের। সেরা চার তৃতীয় দল নিশ্চিত করতে প্রথমেই দেখা হবে পয়েন্ট। যদি পয়েন্ট সমান হয় তাহলে দেখা হবে গোলের পার্থক্য। তারপর দেখা হবে কোন দল বেশি জিতেছে। তবে এই কঠিন সমীকরণ এড়াতে চাইলে পর্তুগালকে জিততেই হবে আজকে। হয়তো আজকের ম্যাচেই রুদ্রমূর্তি ধারণ করতে পারেন পর্তুগীজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

বিষয় : ইউরো ২০২০ পর্তুগাল ফ্রান্স ফুটবল

মন্তব্য করুন