করোনা মাহামারির কারণে এক বছর পিছিয়ে চলতি বছর ২৩ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে 'গ্রেটেস্ট শো অফ আর্থ' অলিম্পিক। মহামারির সতর্কতার অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে নানা পদক্ষেপের কথা জানায় কর্তৃপক্ষ। আগামী মাস থেকে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতায় প্রতিটি স্টেডিয়ামে দর্শক সংখ্যা হবে মোট আসনের অর্ধেক।

সতর্কতার অংশ হিসেবে স্টেডিয়ামে উল্লাস নিষিদ্ধ করা হয়েছে। দর্শকদের মাস্ক পড়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে বলা হয়েছে। তাছাড়া দর্শকদেরকে কোন ধরনের ভিড় তৈরি না করে সরাসরি স্টেডিয়ামে প্রবেশ এবং ইভেন্ট শেষে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে। 

এদিকে জাপানে বর্তমানে সব ধরনের ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অ্যালকোহল গ্রহণ করার সুবিধা থাকলেও অলিম্পিকে সে সুবিধা রাখা হচ্ছে না। স্টেডিয়ামে অ্যালকোহল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। শুধু অ্যালকোহল নয়, এবারের অলিম্পিকে কোন অ্যাথলেটের কাছে অটোগ্রাফ চাইতে পারবেন না কোন দর্শক।

অলিম্পিক আয়োজন করতে সাবধানতার কোন বিকল্প নেই জানিয়ে আয়োজক কমিটির সভাপতি সেইকো হাশিমোতো জানান, ‘উৎসবের আমেজটা সামলে রাখতে হবে, এটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। মানুষ হৃদয়ে আনন্দবোধ করুক, কিন্তু তারা উচ্চশব্দ-হৈ হুল্লোর এড়াতে হবে। এসব ব্যাপারেই আমাদের সৃষ্টিশীল হতে হবে এবং উদ্‌যাপনের নতুন উপায় খুঁজে বের করতে অনেক ভাবতে হবে।’