২১ বছরের খরা কাটিয়ে ভারোত্তোলনে ভারতকে অলিম্পিক পদক এনে দিয়েছেন মীরাবাই সাইখোম চানু। তার হাত ধরেই চলতি টোকিও অলিম্পিকের মঞ্চ থেকে প্রথম পদক পেয়েছে ভারত।সেই চানুর জীবনকাহিনী এবার ভেসে উঠবে রুপালি পর্দায়।

ভারতের সংবাদমাধ্যমের খবর, মণিপুরী ছবিতে অলিম্পিক পদকজয়ীর জীবনী ফুটে উঠবে। ইতোমধ্যেই এ নিয়ে সেউতি ফিল্মস প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কথাবার্তা হয়ে গেছে চানুর। উচ্ছ্বসিত ভারোত্তোলক ছবি সংক্রান্ত চুক্তিপত্রে সইও করে দিয়েছেন।

ছবিটি মণিপুরী ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি এবং আরও কয়েকটি ভাষায় মুক্তি পাবে। অর্থাৎ তার জীবন সংগ্রামের নানা খুঁটিনাটি জেনে নেওয়ার সুযোগ মিলবে। হাজার প্রতিকূলতা কাটিয়েও কীভাবে সেরা হওয়া যায়, সেই কাহিনিই থাকবে এই সিনেমায়। 

এই সিনেমায় মানুর চরিত্রে যিনি অভিনয় করবেন, তাকে  বয়স, উচ্চতা, শরীরের গঠন- সবদিক থেকেই চানুর সঙ্গে মানানসই হতে হবে। তারপর তাকে চানুর মতো করে ট্রেনিং দেওয়া হবে, যাতে অভিনয় সাবলীল হয়। সব মিলিয়ে শুটিং শুরু হতে এখনও অনেক দেরি।

ভারতীয় অ্যাথলেটদের নিয়ে বলিউডে বহু বায়োপিক হয়েছে। বক্সার মেরি কমের চরিত্র ফুটিয়ে তুলেছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মহেন্দ্র সিং ধোনি, মিলখা সিং, সাইনা নেহওয়াল-সহ একাধিক তারকার জীবনকাহিনী অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। এবার মণিপুরী ছবি ইন্ডাস্ট্রির সৌজন্যে জানা যাবে চানুর জীবনের নানা অজানা গল্প।