প্রথমবারের মতো দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া। সেই সিরিজে টানা তিন ম্যাচ জিতে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টাইগাররা সিরিজ জিতেছে। এটি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যেকোনো ফরম্যাটে টাইগারদের প্রথম সিরিজ জয়। দুদলের মধ্যকার চতুর্থ টি-টোয়েন্টি আজ। 

এই ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এই নিয়ে টানা দুই ম্যাচে টস জিতলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৪ রান তুলে বাংলাদেশ। টাইগারদের হয়ে সর্বোচ্চ ২৮ রান আসে নাঈমের ব্যাট থেকে। জিততে হলে অস্ট্রেলিয়ার টার্গেট ১০৫ রান।

টানা তিন ম্যাচ জয় পাওয়া বাংলাদেশ আজও অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে খেলবে। তবে গত ম্যাচের থেকে অজিদের একাদশে এসেছে দুই পরিবর্তন। অভিষিক্ত নাথান এলিস ও অ্যাডাম জাম্পার জায়গায় দলে থাকছেন অ্যান্ড্রু টাই ও মিচেল সুইপসন।

সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে অজিদের সামনে চোখ রাঙাচ্ছে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের ভয়। তাই চতুর্থ ম্যাচে হার থেকে বাঁচার মন্ত্র খুঁজছে অস্ট্রেলিয়া।

গতকাল সিরিজ হারার মধ্যে দিয়ে অস্ট্রেলিয়া গড়েছে কিছু লজ্জার রেকর্ড। নিজেদের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড তাড়া করতে ব্যর্থ হয় অস্ট্রেলিয়া। মাত্র চার উইকেট হারিয়ে দেড়শোর কম রান তাড়া করতে ব্যর্থ হওয়া প্রথম টিমও হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এ নিয়ে টানা আট ম্যাচ টার্গেটে ব্যাট করে ম্যাচ হেরেছে অস্ট্রেলিয়া, তাদের সামনে রয়েছে কেবল শ্রীলংকা এবং জিম্বাবুয়ে।

বাংলাদেশের একাদশ:

সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ(অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান, আফিফ হোসেন, শামীম হোসেন পাটোয়ারি, শেখ মেহেদি হাসান, নাসুম আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান এবং শরিফুল ইসলাম।

অস্ট্রেলিয়ার একাদশ:

ম্যাথু ওয়েড (অধিনায়ক), আলেক্স ক্যারি, বেন ম্যাকডারমট, ড্যান ক্রিশ্চিয়ান, মিচেল মার্শ, মোয়েসেস হেনরিকস, অ্যাস্টন টার্নার, অ্যাস্টন অ্যাগার, মিচেল সুইপসন, অ্যান্ড্রু টাই, জশ হ্যাজলউড।