লিওনেল মেসি আর বার্সেলোনা; ছিল মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। এতটা গাঢ় বন্ধনও হলো ছিন্ন। যেটা মেসির জন্য যেমন নতুন অধ্যায় শুরুর পালা, বার্সার জন্যও তেমন। ২১ বছর যে ক্লাবকে আগলে ৩৫টি শিরোপা জিতেছেন তাকে ছাড়া নতুন ঠিকানায় মেসিকে যে প্রথম থেকেই সাজাতে হবে সব। বার্সার বেলায়ও তার ব্যতিক্রম হবে না। এরই মধ্যে মাঠের বাইরে মেসির প্রভাব টের পাচ্ছে দলটি। টিকিট বিক্রি হচ্ছে কম, ফ্যান-ফলোয়ারে ভাটার টান। সেইসঙ্গে স্পন্সররা পাকাচ্ছে ঝামেলা। এসবের মধ্যে আজ আবার লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু করতে যাচ্ছে কাতালানরা। প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে রিয়াল সোসিয়েদাদের মুখোমুখি হবে তারা।

গোল নেই, দুই দলের গোল সমান কিংবা জিততে হলে একটা গোল করতে হবে- এমন সব পরিস্থিতিতে গেল দুই দশক মেসিই ছিলেন বার্সার ত্রাতা। হয় নিজে গোল করে বার্সাকে বাঁচিয়েছেন, না হয় সতীর্থদের দিয়ে গোল করিয়ে জয়টা এনে দিয়েছেন। এখন যখন মেসি নেই ওই কাজটা করবে কে। প্রশ্নটা বার্সা সমর্থকদের মাথায়ও ঘুরপাক খাচ্ছে। হ্যাঁ, এটা ঠিক, বার্সার আক্রমণভাগে নতুন কয়েকজন যোগ দিয়েছে। নেদারল্যান্ডসের ডিপাই আছেন, প্রীতি ম্যাচেও ভালো পারফর্ম করেছেন তিনি। চোট কাটিয়ে ফিরেছেন আনসু ফাতি। সেইসঙ্গে ব্রাথওয়েটও ছন্দে। আন্তোনিও গ্রিজম্যানও খোলস ছেড়ে বের হতে চাইছেন। তাদের ওপর কোম্যান ভরসা রাখতেই পারে। 

কিন্তু ফুটবল তো বুদ্ধির খেলাও। প্রতিপক্ষের গোলমুখে মেসি যেমন ভয়টা তৈরি করতেন। ডি বক্সের বাইরে থেকে ম্যাজিক্যাল ফ্রি কিকে যেভাবে বিশ্বের বাঘা বাঘা গোলকিপারকে বোকা বনে পাঠাতেন। ডেপাই-ফাতিরা তার কতটুকু করতে পারবেন- সেটাই দেখার অপেক্ষা। চিন্তা, টেনশন বা শূন্যতা যা-ই থাকুক, বার্সাও চাইছে মেসির চ্যাপ্টারটা ক্লোজ করে সামনে এগোতে। ঠিক যেমন কোম্যানও বলেছেন, 'মেসি এখন অতীত, আমাদের বর্তমান নিয়ে ভাবতে হবে। দলে বেশ কয়েকজন তরুণ ফুটবলার আছে। আমরা তাদের প্রতি বাড়তি নজর দিচ্ছি। গত কয়েকদিন যা হলো সেটা নিয়ে চিন্তা করার সময় এখন নেই। আমাদের ক্লাবের ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবতে হবে।'

মেসি নেই- আক্রমণ ভাগটাকেই ঢেলে সাজানোর চিন্তা বার্সা কোচের। এরই মধ্যে তাকে ছাড়া ট্রায়ালও সেরে ফেলেছে দলটি। এখন মূল মঞ্চে দেখানোর সময়। গ্রিজম্যান, ডিপাই, ফাতি আর ব্রাথওয়েট- এই ক'জন কোম্যানের মূল অস্ত্র। সঙ্গে বদলি হয়ে কিছু সময় খেলতে পারেন ত্রিনকাও আর উসমান ডেম্বেলে। বাকি ফরমেশনে খুব একটা পরিবর্তন হওয়ার কথা নয়। তবে ডিফেন্সে এমারসন ও গার্সিয়াকেও যোগ করতে পারেন বার্সা কোচ।