প্রথমে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত, দ্বিতীয়তে নিউজিল্যান্ড, তারপর আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়। সুপার টুয়েলভে টানা তিন জয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে টি২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে এক পা দূরে পাকিস্তান। আজই অপেক্ষাকৃত দুর্বল নামিবিয়াকে হারালেই শেষ চার নিশ্চিত হয়ে যাবে বাবর আজমের দলের। আবুধাবিতে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুখোমুখি হবে দু'দল।

এবারের বিশ্বকাপে চমকের নাম নামিবিয়া। সুপার টুয়েলভে স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে ইতিহাস গড়া আফ্রিকান ছোট এই দেশটির বিপক্ষে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মাত্র একবার মুখোমুখি হয়েছিল পাকিস্তান। ২০০৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ১৭১ রানে জিতেছিল তারা। দীর্ঘ ১৮ বছর পর আবারও নামিবিয়ার মুখোমুখি হওয়া পাকিস্তান এবারের আসরে সবচেয়ে ধারাবাহিক দল। দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে মোহাম্মদ রিজওয়ান-শাহিন শাহ আফ্রিদিরা টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট। দল হিসেবে পাকিস্তান বেশ আত্মবিশ্বাসী, মানসিকভাবে বেশ শক্ত। 

তাদের এই আত্মবিশ্বাস বেড়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে হারানোর পরই। ওয়ানডে ও টি২০ বিশ্বকাপ মিলিয়ে প্রথমবার ভারতের বিপক্ষে জয়ের পর পুরো দলই এখন উজ্জীবিত বলে গতকাল নামিবিয়া ম্যাচ সামনে রেখে অনুষ্ঠিত প্রি-ম্যাচ সংবাদ সম্মেলনে এমনটা জানান অভিজ্ঞ ক্রিকেটার শোয়েব মালিক, 'টিমে সবাই মানসিকভাবে বেশ শক্ত অবস্থানে আছে। যখন আপনি ম্যাচ জিততে থাকবেন, তখন ড্রেসিংরুমে আত্মবিশ্বাসটা বাড়তেই থাকবে। আপনি ভারতের মতো বড় দলের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করবেন এবং জিতবেন, তখন তো পুরো দলের চেহারা বদলে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। আমাদের দলেও এখন সেই পরিবর্তন এসেছে। সবাই উজ্জীবিত।'

প্রতিপক্ষ নামিবিয়া প্রথমবার খেলছে টি২০ বিশ্বকাপে। র‌্যাঙ্কিংয়ে তাদের অবস্থান ১৫তম, পাকিস্তান দুই নাম্বারে। শক্তি ও র‌্যাঙ্কিংয়ে ভিন্নতা থাকলেও একটা জায়গায় দু'দলই একই বিন্দুতে দাঁড়িয়ে। পাকিস্তান ও নামিবিয়া সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। আসিফ আলির এক ওভারে চার ছক্কায় আফগানদের বিপক্ষে পাকিস্তান দারুণ জয় পেলেও রোববার একই প্রতিপক্ষের সঙ্গে পেরে ওঠেনি নামিবিয়া। তাই আজ সহজেই নামিবিয়ার বিপক্ষে জয় পাওয়ার কথা পাকিস্তানের। 

তবে প্রতিপক্ষকে হালকাভাবে নিচ্ছেন না শোয়েব মালিক, 'সত্যি কথা বলতে, কালকের (আজ) ম্যাচ নিয়ে আমরা কোনো ভিন্ন কিছু ভাবছি না। প্রতিটি ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষ নিয়ে যে রকম চিন্তা থাকে, এবারও সেটাই আছে। আর টি২০ এমন একটা ফরম্যাট, যেখানে কোনো দলই প্রতিপক্ষকে খাটো করে দেখতে পারে না।'