বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা মা হয়েছেন। স্বামী বিরাট কোহলি ও সন্তান নিয়ে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন তিনি। কিন্তু মা হওয়ার  আগে বেশ চাপের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাকে। তখন তার মনে হতো সন্তান জন্ম দেওয়ার পর নিজেকে ঘৃণা করতে শুরু করবেন। তার মনে হতো, নিজের শরীর আর আগের মতো থাকবে না।

আনুশকার ভাষ্য,  মা হওয়া নিয়ে আমি খুব চাপে ছিলাম। ভয় পাচ্ছিলাম। আসলে একজন নারীর মা হওয়ার আগে ও পরে মেয়েদের নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তখনই মাথার ভিতর নানা চিন্তা ঘুরতে থাকে। ওই সময়ই আমার মনে হয়েছিল সন্তান জন্মানোর পর আমি শরীরকে ঘেন্না করতে শুরু করব না তো!

সম্প্রতি গ্র্যাজিয়া সাময়িকীর প্রচ্ছদকন্যা হয়েছেন আনুশকা শর্মা। সেখানেই এক সাক্ষাৎকারে মা হওয়ার আগে তার মানসিক অবস্থাও মা হওয়ার পরের অবস্থা সম্পর্কে বলেন তিনি।   

সাক্ষাৎকারে  আনুশকা বলেন,তখন আমার মনে হচ্ছে আমার শরীর আগের মতো থাকবে না; এমনকি আগের মতো টোনডও থাকবে না। এটা নিয়ে বিশেষ সচেতন, এমনকি শরীরচর্চাও করছি। যদিও আমার কাছে সঠিক শরীর বলে কিছু হয় না। আমাকে কেমন দেখতে লাগছে সেটা কখনই আমার হাতে নেই।

স্বামী হিসেবে সে সময়টা দারুণ পাশে ছিলেন বিরাট কোহলি।  মা হওয়ার আগের মুহূর্তগুলোতে তাকে মানসিকভাবে যথেষ্ট সাহায্য করেছেন কোহলি। মহামারির কারণে তখন কোনো খেলায় অংশ নেননি বিরাট। তাই পুরো সময়টা আনুশকাকে নিয়েই থেকেছেন বলে জানান আনুশকা। 

যদিও এর আগে বিয়ে, সংসার, মা হওয়া নিয়ে কখনই প্রকাশ্যে কিছু বলতে শোনা যায়নি বলিউড অনুশাকে। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করলেও, অনুশকা কিন্তু এখনো সবার চোখের আড়ালেই রেখেছেন তার মেয়ে ভামিকাকে।

ক্রিকেটার বিরাট কোহলির সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়ার পর থেকেই সিনেমা থেকে অল্প হলেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন অনুষকা। হাতে গুণে কয়েকটা ছবিই করতেন। তবে নিজের প্রযোজনা সংস্থা খুলে বলিউডের সঙ্গে নিয়মিত যোগসূত্র অবশ্য রেখেছিলেন তিনি।