প্রয়াত ফুটবল আইকন ডিয়েগো ম্যারাডোনার প্রায় ৯০টি জিনিস বিক্রি করার ভার পড়েছিল একটি নিলামকারী সংস্থার ওপর। রোববার পর্যন্ত নিলামের দিন ঠিক করা হলেও বেশ কিছু দামি জিনিস অবিক্রিত থাকায় তা বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে আদ্রিয়ান মের্কাদো গ্রুপ নামের সংস্থাটি। খবর এনডিটিভির।

রোববারের ভার্চুয়াল নিলাম বড় দরদাতাদের আকৃষ্ট করতে ব্যর্থ হয়েছে। তিন ঘণ্টা ধরে চলা নিলামে কেবল ২৬ হাজার ডলার ওঠানো গেছে। অবিক্রিত থেকে গেছে ১৪ লাখ ডলারের বেশি মূল্যের জিনিস। সবচেয়ে বেশি দাম ২ হাজার ১৫০ ডলারে বিক্রি হয়েছে চিত্রশিল্পী লু সেদোভার আঁকা ম্যারাডোনার একটি ছবি। কিন্তু সাবেক বার্সা ও নাপোলি তারকা বুয়েন্স আয়ার্সে মা-বাবাকে যে বাড়ি দিয়েছিলেন, সেটা অবিক্রিত থেকে গেছে। এই আলিশান বাড়ির দাম ধরা হয়েছিল সর্বনিম্ন ৯ লাখ ডলার। অবিক্রিত ছিল ৩ লাখ ৯০ হাজার ডলার মূল্যের ম্যারাডোনার দুটো বিএমডব্লিউ গাড়িও।


মা-বাবাকে কিনে দেওয়া ম্যারাডোনার বাড়ি

ভার্চুয়াল এই নিলামে অনেকেই অংশ নিতে পারেননি বলে মনে করা হচ্ছে। সেজন্যেই দিন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিলামকারী সংস্থা আদ্রিয়ান মের্কাদো গ্রুপ। তারা জানায়, অবশিষ্ট আইটেমগুলোর জন্য নতুন দরদাতাদের নিলামে নিবন্ধনের সময় আরও ১০ দিন বাড়ানো হয়েছে। 

নিলামে তোলা আইটেমগুলোর মধ্যে ম্যারাডোনার সাথে প্রয়াত কিউবার নেতা ফিদেল কাস্ত্রোর একটি ছবিও বিক্রি হয়েছে। দুবাইয়ের একজন ক্রেতা এটি ১,৬০০ ডলারে কিনে নেন। বিক্রি হওয়া অন্যান্য আইটেমগুলোর মধ্যে রয়েছে নাপোলির একটি জ্যাকেট, ট্রেনিং প্যান্ট এবং এক বাক্স কিউবান চুরুট।

ম্যারাডোনার এস্টেটের ব্যয় পরিশোধের জন্য এই নিলাম আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারক লুসিয়ানা টেডেস্কো।