বেলজিয়ামের 'সবচেয়ে শক্তিশালী পুরুষ' ফ্রেদেরিক সিনিস্ত্রা বড় মুখ করে করোনার বিপক্ষে যেন এক রকম যুদ্ধই ঘোষণা করেছিলেন। তিনবারের বিশ্ব কিক বক্সিং চ্যাম্পিয়ন সিনিস্ত্রা, করোনাকেও প্রতিপক্ষের মতো উড়িয়ে দিতে চেয়েছিলেন টিকার সাহায্য না নিয়ে। কিন্তু সেই তাকেই ৪১ বছর বয়সে কেড়ে নিল করোনা।

ইংলিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ বলছে, গত ১৫ ডিসেম্বর মারা গেছেন তিনি। মৃত্যুকালে সিনিস্ত্রার বয়স হয়েছিল ৪০ বছর। এর আগে গত নভেম্বরে করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। শেষ দিকে অবস্থার অবনতি ঘটলে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ভর্তি করা হয় তাকে।

সংবাদ মাধ্যমের তথ্যানুযায়ী, সিনিস্ত্রা করোনা টিকা না নেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছু যুক্তি দাঁড় করিয়েছিলেন। তার দাবি ছিল, শারীরিকভাবে শক্তিশালী থাকায় করোনা তাকে আক্রমণ করলেও একেবারে কাবু করতে পারবে না। তার বয়সও তুলনামূলকভাবে কম। করোনার টিকার পরিবর্তে এগুলোই তার প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করবে।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে অবশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সবাইকে আশ্বস্ত করেই পোস্ট দিয়েছিলেন সিনিস্ত্রা। লিখেছিলেন, 'পাশে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আমি বাসায় থেকে সুস্থ হচ্ছি, যেভাবে সুস্থ হওয়ার কথা। আরও হাজারগুণ শক্তিশালী হয়ে আমি সবার মাঝে ফিরব।'

কিন্তু ফিরতে পারলেন না, বেলজিয়ামের লিয়েজে মারা গেলেন এই কিক বক্সার। শুধু তাই নয়, সিনিস্ত্রার মৃত্যুর পর তার স্ত্রীও স্বীকার করতে নারাজ যে স্বামী করোনার কারণেই প্রাণ হারিয়েছেন!